kalerkantho


রূপগঞ্জে সংঘর্ষে আহত ১২

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পারিবারিক বিষয় নিয়ে জামাতার লোকজন শ্বশুরবাড়িতে হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগে উঠেছে। এ সময় উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ১২ জন আহত হয়েছে। গত শুক্রবার রাতে উপজেলার তারাব পৌর এলাকার মোগড়াকুল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, কয়েক মাস আগে মোগড়াকুল এলাকার লাল মিয়ার মেয়ে মর্জিনা আক্তারের স্বামী মামুন মিয়া দ্বিতীয় বিয়ে করেন। এ ঘটনায় অভিমান করে স্বামীকে না জানিয়ে মর্জিনা আক্তার মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে চলে যান। কিন্তু মর্জিনার মেয়ে মারিয়া আক্তার তার নানার বাড়িতেই থাকে। পরে মর্জিনার অন্য বোন শাহনাজের ছেলে সাগর মিয়া তাঁর খালু (মর্জিনার স্বামী) মামুনকে বিষয়টি বলে দেন। এ নিয়ে শুক্রবার রাত ১০টার দিকে মর্জিনার মেয়ে মারিয়া আক্তারের সঙ্গে সাগরের তর্কবিতর্ক হয়। একপর্যায়ে সাগরের বাবা মাইনুল ইসলাম ও মা শাহনাজসহ তাদের লোকজন ধারালো অস্ত্র নিয়ে লাল মিয়ার বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। এ সময় লাল মিয়ার সঙ্গে জামাতা মাইনুল ইসলামের বাগিবতণ্ডা হয়।

একপর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। এতে উভয় পক্ষের নারীসহ অন্তত ১২ জন আহত হয়। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সেখান থেকে গুরুতর আহত রাবেয়া বিবি নামের একজনকে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য