কটকা ট্র্যাজেডি দিবস আজ-335256 | প্রিয় দেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

সোমবার । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১১ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৩ জিলহজ ১৪৩৭


কটকা ট্র্যাজেডি দিবস আজ

খুলনা অফিস ও বাগেরহাট প্রতিনিধি   

১৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



আজ সুন্দরবনের কটকা ট্র্যাজেডি দিবস। ২০০৪ সালের এই দিনে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১ জন মেধাবী শিক্ষার্থী শিক্ষাসফরে গিয়ে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বাগেরহাটের মংলার কটকা সমুদ্রসৈকতে ডুবে যান। পরে তাঁদের লাশ উদ্ধার করা হয়। ১১ শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর বন বিভাগের পক্ষ থেকে ওই সমুদ্রসৈকতকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। তখন থেকে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবছর ১৩ মার্চ শোক দিবস হিসেবে পালন করে আসছে। মেধাবী শিক্ষার্থীদের স্মৃতি ধরে রাখতে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কটকা স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হয়েছে। প্রতিবছরের মতো এবারও শোক দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এদিকে ১১ জন শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর থেকে বন বিভাগ সব ধরনের পর্যটকের সুন্দরবনের ছোট-বড় পাঁচটি সমুদ্রসৈকতে ভাটার সময় নামা নিষিদ্ধ করেছে। ভ্রমণকারী লঞ্চে লাইফ জ্যাকেট ও লাইফ বয়া থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে সুন্দরবন ভ্রমণে যাওয়া পর্যটকদের নিরাপত্তা এখনো নিশ্চিত করা হয়নি। প্রতিদিন দেশি-বিদেশি শত শত পর্যটক বন বিভাগের নিরাপত্তারক্ষী ও গাইড ছাড়াই ঝুঁকি নিয়ে সুন্দরবন ভ্রমণ করছে। জনবল সংকটের কারণে পর্যটকদের নিরাপত্তা দিতে পারছে না বন বিভাগ।

এ ব্যাপারে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. সাইদুল ইসলাম জানান, সুন্দরবনের অভ্যন্তরে ছোট-বড় পাঁচটি সমুদ্রসৈকতে ভাটার সময় সব ধরনের পর্যটকদের নামা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। জোয়ারের সময় এসব সমুদ্রসৈকতে কোনো পর্যটককে বেশি গভীরে যেতে দেওয়া হয় না। পর্যটকদের সঙ্গে গাইড বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সমুদ্রসৈকতগুলোতে সব ধরনের ট্যুর লঞ্চ নোঙর করা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

মন্তব্য