বন্দরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা-334688 | প্রিয় দেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০১৬। ১৬ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৮ জিলহজ ১৪৩৭


বন্দরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

১১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের বন্দরে চোর আখ্যা দিয়ে এক যুবককে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় গুরুতর জখম হয়েছে আরো দুজন। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, নিহত লিখন (৩৫) বন্দরের মদনগঞ্জ শান্তিনগর এলাকার আমানউল্লাহ মিয়ার ছেলে। আর আহত দুজন হলো একই এলাকার জামাল ও হূদয়। আহত দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরের ওই ঘটনায় সাদ্দাম, সানি ও টিটুকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনার পর এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। দুপুরে খবর পেয়ে পুলিশ সাদ্দামের বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। এ সময় সাদ্দামের ঘর থেকে বঁটি, চাপাতি ও হাতুড়ি উদ্ধার করা হয়।

নিহত লিখনের স্ত্রী শাহনাজ বেগম জানান, তাঁর স্বামীকে মাদক ব্যবসায়ী সাদ্দাম বৃহস্পতিবার দুপুরে বাড়ি থেকে ডেকে নেয়। সাদ্দাম তাদের বাড়িতে নিয়ে তাঁর স্বামীকে আটকে রাখে। এ সময় সাদ্দামের ভাই বায়েজিদ একই এলাকার জামাল ও হূদয়কেও বাড়ি থেকে ডেকে এনে তাদের বাড়িতে আটকে রাখে। পরে বুধবার রাতে সানির দোকানে চুরি হয়েছে বলে চোর আখ্যা দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে তাঁর স্বামীকে হত্যা করে। এ সময় ওই দুজনকেও গুরুতর জখম করা হয়।

এদিকে একটি সূত্র জানায়, সাদ্দাম একজন পাইকারি মাদক বিক্রেতা। নিহত লিখন, আহত জামাল ও হূদয় খুচরা মাদক বিক্রেতা। তারা সাদ্দামের কাছ থেকে ১০০ পিস ইয়াবা নিয়ে বিক্রি করে টাকা দেয়নি। পরে আবারও বকেয়া টাকা একসঙ্গে পরিশোধ করার কথা বলে আরো ১০০ পিস ইয়াবা নিয়ে বিক্রি করেও টাকা না দেওয়ায় সাদ্দাম লোকজন নিয়ে তাদের ডেকে এনে মারধর করে।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার ওসি আবুল কালাম জানান, লিখনকে চোর আখ্যা দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে ঠিক কী কারণে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে, তদন্ত না করে তা বলা যাচ্ছে না। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

মন্তব্য