kalerkantho

১ম ক লা ম

পাশবিকতা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

১০ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রবাসীর স্ত্রীর ওপর পাশবিক নির্যাতন চালিয়েছে এলাকার চিহ্নিত এক ডাকাত। পুলিশ জানায়, ধর্ষণচেষ্টার সময় ওই ডাকাতের মুখোশ খুলে গেলে তাকে চিনে ফেলায় সে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

গত মঙ্গলবার রাতে সদর উপজেলার থলিয়ারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। উন্নত চিকিৎসার জন্য ওই গৃহবধূকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় তাঁর শাশুড়ি থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মফিজ উদ্দিন জানান, ধর্ষণের চেষ্টাকালে মুখোশ খুলে গিয়ে চিনে ফেলায় চিহ্নিত ডাকাত কাদের এ ঘটনা ঘটিয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তিনি আরো জানান, কাদেরের বিরুদ্ধে ডাকাতিসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানায়, মঙ্গলবার রাতে থলিয়ারা গ্রামের এক ইতালিপ্রবাসীর বাড়ির গ্রিলের তালা কেটে ও ভেঙে ভেতরে ঢোকে মুখোশধারী একাধিক ব্যক্তি। এ সময় ওই প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে ডাকাত কাদের। ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে ওই ডাকাতের মুখোশ খুলে যায়।

কাদেরকে চিনে ফেলায় সে ওই নারীর স্পর্শকাতর স্থানে রড দিয়ে আঘাত করে। এ সময় ওই নারী চিৎকার শুরু করলে মুখোশধারীরা স্বর্ণালংকার লুট করে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই গৃহবধূকে প্রথমে জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে ঢাকায় পাঠানো হয়। থানার ওসি মো. মাঈনুর রহমান জানান, ধর্ষণের উদ্দেশ্যেই একাধিক ব্যক্তি ওই বাড়িতে হানা দেয়। ভেতরে একজন গিয়ে ওই নারীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে এবং দুজন বাইরে অবস্থান নেয়। জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 


মন্তব্য