আসামিরা অধরা-333512 | প্রিয় দেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

বুধবার । ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৩ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৫ জিলহজ ১৪৩৭

শ্রীনগরে দুই সাংবাদিকের ওপর হামলা

আসামিরা অধরা

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



শ্রীনগরে স্থানীয় সাংবাদিক অধীর রাজবংশী ও মীর রাতুলের ওপর হামলাকারীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও তাদের গ্রেপ্তার করছে না বলে পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। অথচ হামলাকারীদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় সেখানের সাংবাদিকদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

সরেজমিনে মামলার এজাহারভুক্ত আসামিদের একজনকে সোমবার সকালে থানা থেকে ৫০ গজের মধ্যে ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে। এ ছাড়া প্রধান আসামি উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক জুয়েল লস্কর ও দ্বিতীয় আসামি শ্রীনগর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ফাহিম হোসেন প্রিন্সকে দেখা গেছে ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোকলেছুর রহমানের নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে। অথচ অজ্ঞাত কারণে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করছে না।

অভিযোগ অস্বীকার করে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ সাহিদুর রহমান বলেন, ‘আসামিরা থানার আশপাশে ঘোরাঘোরি করছে না। তবে তারা এলাকায় আছে। আমরা তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছি।’

উল্লেখ্য, গত শনিবার বিকেলে উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জুয়েল লস্কর ওরফে মলম জুয়েল ও দেউলভোগ এলাকার পারভেজের ছেলে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সাভাপতি প্রিন্স এবং উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা রুবেল জয়ের নের্তৃত্বে ৫০-৬০ জন শ্রীনগর সদর ইউনিয়নের নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী তাজুল ইসলামের বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে দৈনিক ভোরের কাগজ পত্রিকার শ্রীনগর প্রতিনিধি অধির রাজবংশী ও দৈনিক রূপবানী পত্রিকার শ্রীনগর প্রতিনিধি মীর রাতুলের ওপর হামলা চালানো হয়। এ সময় তাদের মোটরসাইকেল এবং ক্যামেরা ভাঙচুর করে হামলাকারীরা। পরে আহত দুই সাংবাদিককে প্রথমে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এ ঘটনায় অধীর রাজবংশী বাদী হয়ে গত রবিবার শ্রীনগর থানায় চারজনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত পরিচয় একজনকে আসামি করে একটি মামলা করেন।

মন্তব্য