কেরানীগঞ্জে স্ত্রীকে হত্যা-332722 | প্রিয় দেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৪ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৬ জিলহজ ১৪৩৭


কেরানীগঞ্জে স্ত্রীকে হত্যা

তুরাগে মিলল অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

৬ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



কেরানীগঞ্জে যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে হত্যা করেছেন স্বামী। টঙ্গীর তুরাগ নদে এক ব্যক্তির অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর—

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) : যৌতুকের জন্য গত শুক্রবার রাতে স্ত্রী মাকসুদা বেগমকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর অভিযুক্ত স্বামী সিরাজুল ইসলাম সরদার পালিয়েছেন। মাকসুদা-সিরাজুল দম্পতি কেরানীগঞ্জের বন্দ ডাকপাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। গৃহবধূর পরিবার সূত্রে জানা যায়, সাত-আট বছর আগে শরীয়তপুরের পালং থানার উপুরগাঁও গ্রামের মাকসুদা বেগমের সঙ্গে পাশের চরকান্দি গ্রামের সিরাজুল ইসলাম সরদারের বিয়ে হয়। তাঁদের সংসারে চাঁদনী নামের ছয় বছরের একটি মেয়ে রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই সিরাজুল তাঁর স্ত্রী মাকসুদাকে যৌতুকের জন্য চাপ দিতে থাকেন। তাঁকে কয়েক দফা টাকাও দেওয়া হয়েছে। মাসখানেক আগে তিনি ব্যবসা করার কথা বলে তাঁর স্ত্রীর কাছে আবার দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। সপ্তাহখানেক আগে দেশের বাড়িতে গিয়ে তিনি ২৫ হাজার টাকা নিয়েও আসেন। বাকি টাকার জন্য শুক্রবার রাতে মাকসুদার সঙ্গে তাঁর ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে তিনি মাকসুদাকে বেধড়ক মারধর করেন। এতে তিনি সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়লে সিরাজুল তাঁর মুখে বিষ ঢেলে দেন। পরে তিনি বাসার অন্য ভাড়াটেদের ডেকে এনে তাঁর স্ত্রী আত্মহত্যার জন্য বিষ খেয়েছে বলে প্রচার করেন। এ সময় তাঁরা মাকসুদাকে উদ্ধার করে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এ খবর শুনে হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ রেখেই পালিয়ে যান সিরাজুল। এ ব্যাপারে গৃহবধূর ভাই মো. নূরে আলম মোল্লা জানান, ভাড়াটেদের কাছে খবর পেয়ে তাঁরা হাসপাতালে গিয়ে মাকসুদার লাশ দেখতে পান। এদিকে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বাদশা আলম জানান, ওই গৃহবধূর বাঁ চোখে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

টঙ্গী (গাজীপুর) : টঙ্গী বাজার এলাকা-সংলগ্ন তুরাগ নদ থেকে গতকাল শনিবার সকালে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তির (৪০) অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওই ব্যক্তির পরনে ফুলহাতা চেক শার্ট ও কালো রঙের প্যান্ট ছিল। এ ঘটনায় টঙ্গী মডেল থানায় মামলা হয়েছে।

মন্তব্য