রূপগঞ্জে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিতে গেলে-332294 | প্রিয় দেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১২ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৪ জিলহজ ১৪৩৭


রূপগঞ্জে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিতে গেলে পিটুনি

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৫ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে রাতের আঁধারে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দেওয়ার সময় এক ব্যক্তিকে পিটুনি দিয়েছে বৈধ গ্রাহকরা। এ সময় ওই গ্রাহকরা দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল করে। অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ দেওয়া নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা দেখা দেয়। গ্রাহকদের বিক্ষোভের মুখে পুলিশের সহযোগিতায় তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ অবৈধ গ্যাস পাইপলাইন বিচ্ছিন্ন করে। দুই দিন ধরে উপজেলার সাওঘাট এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সাওঘাট এলাকায় পাঁচ শতাধিক গ্যাসের বৈধ গ্রাহক রয়েছে। এসব গ্রাহক বেশ কয়েক মাস ধরে গ্যাস সংকটে ভুগছে। এ ব্যাপারে স্থানীয় যাত্রামুড়া তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষকে জানিয়েও কোনো ফল পাওয়া যায়নি। এদিকে সাওঘাট ঋষিপাড়াসহ আশপাশের এলাকায় গোবিন্দ নামের এক দালাল মোটা অঙ্কের টাকা নিয়ে সাধারণ মানুষকে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়ে যাচ্ছে। গ্রাহকরা অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিতে নিষেধ করলেও গোবিন্দ তা অব্যাহত রাখে।

এ ছাড়া গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে সাওঘাট ঋষিপাড়া এলাকায় স্থানীয় শের আলীর ছেলে সিরাজুল ইসলামের নির্দেশে দালাল গোবিন্দ অবৈধভাবে দুই ইঞ্চি ব্যাসের প্রায় ৭০০ ফুট দৈর্ঘ্য গ্যাসের পাইপলাইন স্থাপন করতে যায়। এ সময় গ্যাস সংকটে ভুক্তভোগী স্থানীয় বৈধ গ্রাহকরা ওই সংযোগে বাধা দেয়। এ নিয়ে দুই পক্ষে বাগিবতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে গোবিন্দকে আটক করে পিটুনি দেওয়া হয়। পরে গতকাল শুক্রবার গ্রাহকরা অবৈধ গ্যাস সংযোগ বন্ধের দাবিতে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির সামনে এসে বিক্ষোভ করে। পরে পুলিশ গিয়ে অবৈধ গ্যাস সংযোগ বন্ধ করে দেয়।

অন্যদিকে শুক্রবার দুপুরে আবারও অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিতে গেলে বৈধ গ্রাহকরা দ্বিতীয়বারের মতো বাধা দেয়। একপর্যায়ে জুতা, লাঠি ও ঝাড়ু হাতে নিয়ে মিছিল করে তারা। পরে বিক্ষোভকারী গ্রাহকদের সামনেই পুলিশের উপস্থিতিতে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ অবৈধ গ্যাসের পাইপলাইন উপড়ে ফেলে। বৈধ গ্রাহকরা জানায়, অবৈধ গ্যাস সংযোগের কারণে তারা গ্যাস পাচ্ছে না।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম বলেন, তিতাস অফিস থেকে অভিযোগ দিলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে তিতাস গ্যাসের যাত্রামুড়া অফিসের উপমহাব্যবস্থাপক খন্দকার আব্দুস সবুর বলেন, অবৈধ গ্যাস সংযোগের বিষয়টি জেনে ঘটনাস্থলে তিতাসের একটি টিম পাঠানো হয়েছে। অবৈধ গ্যাসের পাইপলাইন বিচ্ছিন্ন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য