হিন্দু পরিবারের কাছে ১০ লাখ টাকা-332254 | প্রিয় দেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১২ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৪ জিলহজ ১৪৩৭


হিন্দু পরিবারের কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি

রাজবাড়ী

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

৫ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ফসল লুটের মামলা করায় এক হিন্দু পরিবারের কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই পরিবার গতকাল শুক্রবার সকালে রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা করেছে।

মামলাটি করেছেন রাজবাড়ী জেলা সদরের বৃচাত্রা গ্রামের মৃত নৃপেন্দ্র নাথ চৌধুরীর ছেলে কৃষক নিরঞ্জন কুমার চৌধুরী। বাদী জানান, ওই এলাকায় তাঁর ৫০ বিঘা জমি রয়েছে। স্থানীয় মৃত জনাব আলী সেখের ছেলে আবুল হোসেন সেখ, আকেন আলী সেখের ছেলে আক্কাস আলী সেখ, জালাল সেখ ও নজরুল সেখ এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও চাঁদাবাজি করে আসছে। সেই সঙ্গে এলাকার হিন্দু পরিবারগুলোর সদস্যদের কাছ থেকে নানা কৌশলে চাঁদা আদায় এবং জমি দখল ও ফসল লুটপাট করে আসছে। তাদের অত্যাচারে এলাকার বহু হিন্দু পরিবার দেশ ছেড়ে ভারতে চলে গেছে। তিনি আরো জানান, ওই ব্যক্তিরা এর আগে তাঁর কাছে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। তিনি ওই টাকা না দেওয়ায় তারা জমির ফসল লুটপাট করে। ওই ঘটনায় তিনি আদালতে মামলা করেন। মামলার পর ওই ব্যক্তিরা তাঁর ওপর প্রচণ্ড ক্ষেপে যায়। তারা গত ২৯ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টার দিকে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তাঁর বাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে এবং তাঁর নাম ধরে ডাকাডাকি করে। একপর্যায়ে তিনি ঘরের বাইরে বের হলে তারা তাঁর বুকে ধারালো অস্ত্র ধরে। একই সঙ্গে তারা ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দিলে হত্যার হুমকি দেয়। এ সময় তাঁর ছেলে অনুপম চৌধুরী এগিয়ে এসে বাবার জীবন রক্ষায় ২০ হাজার টাকা তাদের হাতে তুলে দেন। আসামিরা ওই টাকা নেওয়ার পর আগামী সাত দিনের মধ্যে বাকি টাকা দেওয়ার নির্দেশ দেয়। বাকি টাকা না দিলে অপহরণের পর হত্যা ও জোরপূর্বক জমি রেজিস্ট্রি করে নেওয়ার হুমকি দিয়ে চলে যায়।

রাজবাড়ী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বদিয়ার রহমান বলেন, ‘বাড়িতে অনধিকার প্রবেশ, চাঁদা দাবি, গ্রহণ ও খুন-জখমের ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগ এনে রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা হয়েছে। ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। মামলার প্রধান আসামি আবুল হোসেন সেখকে গতকাল গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

মন্তব্য