kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

বিলুপ্ত ছিটমহলের ১৫ ইউনিয়নে নির্বাচন স্থগিত

ভোট নিয়ে শঙ্কা

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



সম্প্রতি বিলুপ্ত ছিটমহলের বাসিন্দাদের চলতি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট দেওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। কারণ তাঁরা এখন পর্যন্ত ভোটারই হননি।

তবে তাঁদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে ইতিমধ্যে ঘোষিত তফসিল স্থানীয়ভাবে স্থগিত করা হয়েছে। পাশাপাশি তাঁদের ভোটার বানানোর প্রক্রিয়াও শুরু হতে যাচ্ছে। এর মধ্যে কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে তিনটি, লালমনিরহাটে আটটি ও পঞ্চগড়ে চারটি ইউনিয়নে নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রামের বিলুপ্ত দাশিয়ারছড়া ছিটমহলের বাসিন্দারা জানান, নাগরিকত্ব পাওয়ার পর দ্রুত ভোটার হয়ে প্রথমবারের মতো ইউপি নির্বাচনে ভোট দেওয়ার আশা ছিল তাঁদের। কিন্তু এখন পর্যন্ত ভোটার তালিকায় নাম না ওঠায় তাঁদের সে আশা পূরণ হওয়া নিয়ে তাঁরা আশ্বস্ত হতে পারছেন না। তবে জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, তাঁদের নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সুযোগ করে দিতে গত বুধবার রাতে কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার সদর, শিলকুড়ি ও পাথরডুবি ইউনিয়নের নির্বাচনী তফসিল স্থগিত করা হয়েছে।

বিলুপ্ত ছিটমহল বিনিময় সমন্ব্বয় কমিটি দাশিয়ারছড়া ইউনিটের সভাপতি আলতাফ হোসেন জানান, এখন পর্যন্ত ভোটার তালিকা প্রণয়ন না হওয়ায় তাঁরা আদৌ ভোট দিতে পারবেন কি না, এর নিশ্চয়তা নেই। স্থানীয় মনির হোসেন বলেন, ‘ভোটের কথাবার্তা তো জোরেশোরেই চলছে। আমরাও শুনছি ভোটার হব। কিন্তু কোনো খবর তো পাওয়া যাইতেছে না। ’ প্রধানমন্ত্রীর জন্য গান বেঁধে এবং তাঁকে কাছে পেয়ে জড়িয়ে ধরে আলোচনায় আসা বৃদ্ধা করিফুল বেওয়া ভোট দেওয়ার জন্য আশায় বুক বেঁধে আছেন জানিয়ে বলেন, ‘লিস্টে তো নাম উঠল না। ভোট দিমু কিভাবে?’

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন জানান, সীমানা পুনর্বিন্যাস করে তা অনুমোদনের জন্য নির্বাচন কমিশনে পাঠানো হয়েছে। অনুমোদনের পর ভোটার তালিকা প্রণয়নের কাজ শুরু হবে। জেলার ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দেবেন্দ্র নাথ উরাও জানান, ভোটার তালিকা প্রণয়নের সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা এলে পরবর্তী কাজ শুরু হবে।

ভূরুঙ্গামারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মামুন ভুইয়া জানান, বিলুপ্ত ছিটমহলের মানুষকে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে আবার নির্বাচনী তফসিল দেওয়া হবে।

লালমনিরহাট : সূত্র মতে, জেলার ৫৯টি বিলুপ্ত ছিটমহলের মধ্যে পাটগ্রামেই রয়েছে ৫৫টি। তবে এর মধ্যে ১৯টিতে জনবসতি নেই। বাকি ৩৬টি বিলুপ্ত ছিটমহলের লোকসংখ্যা প্রায় সাড়ে ৯ হাজার। উপজেলার আট ইউনিয়নের মধ্যে সাতটির সঙ্গেই জুড়ে আছে বিলুপ্ত এসব ছিটমহল। অন্যদিকে হাতীবান্ধার ১২টি ইউনিয়নের মধ্যে উপজেলায় থাকা ছিটমহল দুটি পড়েছে একটি ইউনিয়নে। আর ওই দুটি ছিটমহলের লোকসংখ্যা প্রায় ৬০০। স্থগিত হওয়া ইউনিয়নগুলো হচ্ছে পাটগ্রাম উপজেলার কুচলীবাড়ী ইউনিয়ন, জগতবেড়, পাটগ্রাম, বাউড়া, জোংড়া, শ্রীরামপুর ও বুড়িমারী এবং হাতীবান্ধা উপজেলার গোতামারী ইউনিয়ন।

পাটগ্রামের বাঁশকাটা ছিটমহলের বাসিন্দা নজরুল ইসলাম বলেন, ‘প্রায় ছয় দশক পর এখন আমরা বাংলাদেশি। কিন্তু বাংলাদেশি হয়েও আমাদের নাম নেই ভোটার তালিকায়। আর কত দিনে নাম উঠবে সেটাও জানি না। ’ হাতীবান্ধার বিলুপ্ত গোতামারী ছিটমহলের সত্তরোর্ধ্ব ছকবর আলী বলেন, ‘ভেবেছিলাম জীবনের শেষ প্রান্তে এসেও হয়তো বাংলাদেশি নাগরিক হয়ে ভোট দিতে পারব। কিন্তু সেই আশা হয়তো আর পূরণ হবে না। ’ বিলপ্ত বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা ভোটার হইনি বলে ছিটমহলের পাশের ইউনিয়নগুলোর ভোট স্থগিত করার বিষয়টি ইতিবাচক। কিন্তু ভোটার হওয়া নিয়ে আমাদের মনে ঠিকই শঙ্কা আছে। ’ এ বিষয়ে লালমনিরহাট জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফজলুল করিম বলেন, নির্বাচন কমিশনের দেওয়া চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে জেলার আটটি ইউনিয়নের নির্বাচনী কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। আর ছিটমহলবাসীর নাম ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তির বিষয়টি নির্ভর করবে নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের ওপর।

পঞ্চগড় : পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার ছিটমহল লাগোয়া ময়দান দীঘি, বড়শশী, মাড়েয়া বামনহাট ও কাজলদীঘি কালিয়াগঞ্জ ইউনিয়নের নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন। আগামী ৩১ মার্চ ওই চারটিসহ উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ হওয়ার কথা ছিল।

বড়শশী ইউনিয়নের বিলুপ্ত শালবাড়ী ছিটমহলের সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের নিয়ে এত টানাহেঁচড়া করার কোনো মানে হয় না। এতে নতুন করে আমরা বিপদের আশঙ্কা করছি। ’

পঞ্চগড়-নীলফামারী নাগরিক অধিকার সমন্বয় কমিটি ও বিলুপ্ত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির সভাপতি মফিজার রহমান বলেন, ‘বিলুপ্ত ছিটমহল অধিবাসীরা এখন পুরোপুরি বাংলাদেশি নাগরিক। এ জন্য প্রথমেই তাঁদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করা উচিত ছিল। এর পরও বিলুপ্ত ছিটমহলবাসীকে যুক্ত করে ভোটার তালিকা হালনাগাদের পর নির্বাচনের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। ’

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা দেওয়ান মো. সারওয়ার জাহান বলেন, সম্ভবত ওই সব ইউনিয়ন লাগোয়া বিলুপ্ত ছিটমহলের ভোটার হওয়ার যোগ্য বাসিন্দাদের ভোটার তালিকায় যুক্ত করতেই নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে।


মন্তব্য