kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ভারত থেকে ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুত্ আসছে ২৩ মার্চ

বিশ্বজিৎ পাল বাবু, ব্রাহ্মণবাড়িয়া   

৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের পালাটানা বিদ্যুেকন্দ্র থেকে আগামী ২৩ মার্চ বাংলাদেশ ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুত্ পেতে যাচ্ছে বলে আশা করা হচ্ছে। ওই দিন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যে বিদ্যুত্ সরবরাহের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন।

বাংলাদেশ ও ভারতের বিদ্যুত্ বিভাগ সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বিদ্যুত্ সরবরাহ করতে গত বছরের ডিসেম্বরে দুই দেশের মধ্যে পরিবাহী লাইন টানা হয়। গত ৯ জানুয়ারি বাংলাদেশের বিদ্যুত্ প্রতিমন্ত্রী ও ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের বিদ্যুত্মন্ত্রীর মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠকে বিদ্যুতের দাম ঠিক হয়। সেই অনুসারে ভারতীয় পাঁচ রুপি অর্থাত্ প্রায় সাড়ে ছয় টাকায় এক ইউনিট বিদ্যুত্ পাবে বাংলাদেশ।

এ বিষয়ে জানতে ত্রিপুরার পরিবহন ও বিদ্যুত্মন্ত্রীর আগরতলার কার্যালয়ে গতকাল বুধবার বিকেলে ফোন করা হলে তিনি রাজ্যের বাইরে অবস্থান করছেন বলে জানানো হয়। মন্ত্রীর একান্ত সচিব অসীম দে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী ২৩ মার্চ টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে বিদ্যুত্ সরবরাহের উদ্বোধন করবেন বলে কেন্দ্রীয় সরকার চিঠি পাঠিয়েছে। ’

ওই সময় একই বিষয়ে জানতে বাংলাদেশের বিদ্যুত্ বিভাগের সচিব মনোয়ার ইসলামের কার্যালয়ে ফোন করা হলে তাঁর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা ওয়াসিম উদ্দিন জানান, এখন পর্যন্ত ২৩ মার্চ উদ্বোধনের বিষয়টিই ঠিক আছে।    

এদিকে বাংলাদেশের ওপর দিয়ে বিদ্যুত্লাইন নিতে চায় ভারত। এর মাধ্যমে দুই দেশই লাভবান হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন ত্রিপুরা রাজ্যের বিদ্যুত্মন্ত্রী মানিক দে।


মন্তব্য