হবিগঞ্জে ছাত্রী ধর্ষণের ভিডিও-331467 | প্রিয় দেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

রবিবার । ২ অক্টোবর ২০১৬। ১৭ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৯ জিলহজ ১৪৩৭


হবিগঞ্জে ছাত্রী ধর্ষণের ভিডিও ফেসবুকে

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



হবিগঞ্জ শহরে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের পর ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আপলোড করা হয়েছে। এ ঘটনায় স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে ক্ষতিগ্রস্ত ওই ছাত্রী।

স্থানীয়রা জানায়, হবিগঞ্জ সদরের ওই ছাত্রীকে স্কুলে আসা যাওয়ার পথে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামের আব্দুল হাইয়ের বখাটে ছেলে জুনায়েদ আহমেদ সাগর। বিষয়টি ছাত্রী একাধিকবার স্কুলের শিক্ষকদের জানায়। পরে সাগর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। একপর্যা য়ে ২০১৫ সালের ১০ ডিসেম্বর সাগর ও তার বন্ধু কাউছার ছাত্রীকে শায়েস্তাগঞ্জ রেলস্টেশন রোড এলাকার সিরাজ প্লাজায় নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করা হয়। কিছুদিন পর সাগর ছাত্রীকে আবারও ওই স্থানে যেতে বললে সে অপারগতা জানায়। এ সময় সে ভিডিও চিত্রটি প্রকাশ করবে বলে ধর্ষিতাকে হুমকি দেয়। গত ২৫ ফেব্রুয়ারি ওই ভিডিওটি ফেসবুকে ছেড়ে দেওয়া হয়। ভিডিও প্রকাশের পর থেকে স্কুলে যাওয়া ছেড়ে দিয়েছে ভুক্তভোগী ছাত্রী। এ ঘটনায় সে কয়েকবার আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে বলেও জানা গেছে। এদিকে ঘটনার পর গত মঙ্গলবার রাতে ছাত্রীর বাবা হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি মামলা করেছেন।

এ ব্যাপারে ছাত্রীর বাবা বলেন, ‘আমি দিন আনি দিন খাই। নিজে না খাইয়া আমার ছেলেমেয়েদের পড়ালেখা করাইয়া মানুষ করার চেষ্টা করছি। যে আমার মেয়ের এত বড় ক্ষতি করেছে আমি তাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তুমূলক শাস্তির দাবি করছি।’ ছাত্রীর মা বলেন, ‘আমার কন্যার সর্বনাশ করায় সাগরের শাস্তি চাই।’

অন্যদিকে সাগরের বাবা আব্দুল হাই ছেলের অপকর্মের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তিনি মেয়েটির সঙ্গে তাঁর ছেলের বিয়ে দিয়ে বিষয়টির সমাধান চেয়েছেন।

মন্তব্য