kalerkantho


প্রকাশিত সংবাদ প্রসঙ্গে

১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



গত ২৬ ফেব্রুয়ারি দৈনিক কালের কণ্ঠে ‘শিক্ষক নিয়োগে স্বজনপ্রীতি!’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এর প্রতিবাদ জানিয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

প্রতিবাদলিপিতে বলা হয়, ‘পাবলিক হেলথ অ্যান্ড ইনফরমেটিকস বিভাগে শিক্ষক নিয়োগের জন্য একজন প্রার্থীকে সাক্ষাত্কারে ডাকার জন্য চিঠি ইস্যু করা সম্পর্কে অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির যে অভিযোগ করা হয়েছে, তা সত্য নয়। কর্তৃপক্ষ মনে করে, উদ্দেশ্যমূলকভাবে এ অভিযোগ উত্থাপন করা হয়েছে। প্রকাশিত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে বিশেষ যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রার্থীদের ক্ষেত্রে যেকোনো শর্ত শিথিলযোগ্য বলে উল্লেখ ছিল। ওই প্রার্থী খ্যাতনামা টোকিও ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি থেকে বায়োলজিক্যাল সায়েন্স বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন। এ কারণে তাঁকে সাক্ষাত্কার বোর্ডে ডাকা হয়েছে। ’

প্রতিবেদকের বক্তব্য : সাধারণত নিয়োগ প্রার্থীদের মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয় পাঁচ থেকে সাত দিন আগে। কিন্তু একজন প্রার্থীকে পরীক্ষার আগের দিন অফিস চলাকালীন সময়ের পর আমন্ত্রণপত্র দেওয়া হয়, যা অনেকের মনে সন্দেহের সৃষ্টি করে।


মন্তব্য