শেরপুরে দোকান বন্ধ করে ব্যবসায়ীদের-330611 | প্রিয় দেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০১৬। ১৬ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৮ জিলহজ ১৪৩৭


ভ্রাম্যমাণ আদালত

শেরপুরে দোকান বন্ধ করে ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ

আরো তিন স্থানে জেল জরিমানা উচ্ছেদ

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



শেরপুরে দোকান বন্ধ করে ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ

শেরপুর শহরে গতকাল সোমবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের করা জরিমানার টাকা পরিশোধ না করায় এক ওষুধ ব্যবসায়ীকে আটক করে পুলিশ। এর প্রতিবাদে শহরের সব ওষুধের দোকান বন্ধ করে বিক্ষোভ করেছে ব্যবসায়ীরা। দোকানে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখা ও বিক্রির দায়ে ওই ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয়েছিল। এদিকে নড়াইলের লোহাগড়ায় বাল্যবিবাহের আয়োজন করায় কনের বাবা ও বরকে কারাদণ্ড, হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে ১০ ধূমপায়ী ও দুটি রেস্তোরাঁকে জরিমানা এবং নরসিংদীতে শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও চারজনকে বিভিন্ন অভিযোগে জরিমানা করা হয়েছে।

শেরপুর : গতকাল দুপুরে শেরপুর শহরের রঘুনাথ বাজার থানা মোড়ে সেবা মেডিক্যাল হলে অভিযান চালান ইউএনও মোহাম্মদ হাবীবুর রহমানের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখা ও বিক্রির দায়ে দোকানটির পরিচালক আবুল কালামকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। পরে জরিমানার টাকা পরিশোধ না করায় আবুল কালামকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। সূত্র জানায়, ওই ঘটনার প্রতিবাদে শেরপুর কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সদস্যরা শহরের সব ওষুধের দোকান বন্ধ করে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দেয়। শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে। বিক্ষোভকারীরা পরে মিছিলসহ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে জরিমানার টাকার পরিমাণ কমিয়ে অবিলম্বে আটক ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দেওয়ার দাবি জানায়। অন্যথায় কোনো ওষুধের দোকান খোলা হবে না বলে হুমকি দেয়। এদিকে দোকান বন্ধ থাকায় জরুরি ওষুধ না পেয়ে ভোগান্তিতে পড়ে রোগীর স্বজনরা। এ পরিস্থিতিতে জেলা প্রশাসক ডা. এ এম পারভেজ রহিম বিষয়টি নিয়ে তাঁর সম্মেলন কক্ষে ওষুধ ব্যবসায়ীদের নিয়ে বৈঠকে বসেন। পরে বিকেলে জরিমানার টাকা পরেশোধ করে ওই ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। সেই সঙ্গে ওষুধ ব্যবসায়ী নেতারা তাঁদের ডাকা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট প্রত্যাহার করে দোকানপাট খুলে দেন।

শেরপুর-জামালপুরের ড্রাগ সুপার সাখাওয়াত হোসেন রাজু আকন্দ বলেন, ‘জেলা প্রশাসনের নিয়মিত অভিযান হিসেবে এটি পরিচালিত হয়েছে বলে জেনেছি। আমি এ অভিযানের সঙ্গে ছিলাম না।’ শেরপুর কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সাধারণ সম্পাদক শওকত আকবর পনির বলেন, ‘আমরা জেলা প্রশাসকের সঙ্গে আলোচনা করে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ বিবেচনায় দোকানপাট খুলে দিয়েছি।’

নড়াইল : লোহাগড়ায় এক মাস করে কারাদণ্ডপ্রাপ্ত দুজন হলেন কনের বাবা কামাল শেখ ও বর কাশিপুর ইউনিয়নের পদ্মপিলা গ্রামের আদম শেখের ছেলে পলাশ শেখ (২০)। সূত্র জানায়, স্থানীয় কওমি মাদ্রাসায় কারিয়ানার ওই ছাত্রীর (১৪) সঙ্গে পলাশ শেখের বিয়ের দিন ধার্য করা হয় রবিবার রাতে। খবর পেয়ে রাত ১১টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ইউএনও মো. সেলিম রেজা বিয়েবাড়িতে উপস্থিত হয়ে ওই বিয়ে ভেঙে দেন এবং কনের বাবা ও বরকে কারাদণ্ড দেন।

হবিগঞ্জ : গতকাল দুপুরে শায়েস্তাগঞ্জে প্রকাশ্যে ধূমপানের অপরাধে ১০ জনকে ১০০ টাকা করে এবং পচা ও নোংরা পরিবেশে খাবার বিক্রির অভিযোগে দুটি রেস্টুরেন্টকে ৫০০ টাকা করে জরিমানা করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহরিয়ার জামিল এ জরিমানা করেন।

নরসিংদী : সূত্র জানায়, কয়েক বছর ধরে নরসিংদীর ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের দুই পাশে জেলখানার মোড় থেকে জেলা পরিষদ পর্যন্ত নামে-বেনামে শতাধিক অবৈধ স্থাপনা গড়ে ওঠে। স্থাপনাগুলো সড়কের পাশে হওয়া প্রায়ই নানা দুর্ঘটনা ঘটছিল। বেদখল হচ্ছিল সরকারি সম্পত্তি। অন্যদিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চার লেনে উন্নীত করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। উন্নয়নকাজে অবৈধ স্থাপনাগুলো প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সদর ইউএনও মোতাকাব্বির আহাম্মেদের নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী শাহরিয়ার আলম, সদর মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মঞ্জুর মোর্শেদসহ জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রসশনের সদস্যরা।

মন্তব্য