kalerkantho


কেশবপুরের বিএনপি নেতা আবু ঢাকা থেকে ‘নিখোঁজ’

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি    

২০ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



কেশবপুরের বিএনপি নেতা আবু ঢাকা থেকে ‘নিখোঁজ’

যশোর জেলা বিএনপির সহসভাপতি কেশবপুর উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু বকর আবু ঢাকায় নিখোঁজ হয়েছেন। গত রবিবার রাত ৮টার দিকে রাজধানীর পল্টন এলাকা থেকে তিনি নিখোঁজ হয়েছেন বলে তাঁর পরিবার থেকে দাবি করা হয়েছে। এ ঘটনায় তাঁর অনুসারী নেতাকর্মীরা উদ্বেগ উৎকণ্ঠায় রয়েছে।

তাঁর পারিবারিক ও ঢাকায় অবস্থানরত স্থানীয় বিএনপি নেতাদের সূত্রে জানা গেছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়নের জন্য আবু বকর আবু গত ১২ নভেম্বর ঢাকায় যান। পল্টন এলাকার মেট্রোপলিটন হোটেলের চতুর্থ তলায় ৪১৩ নম্বর রুম থেকে দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনে ও জমা দিয়ে গতকাল সোমবার সাক্ষাৎকার বোর্ডে অংশ নেওয়ার জন্য ওই হোটেলেই অবস্থান করছিলেন। রবিবার রাত ৮টার দিকে তাঁর সঙ্গী মজিদপুর ইউপি মেম্বার সাইফুল ইসলাম ওষুধ কিনে ফিরে এসে তাঁকে আর রুমে পাননি। রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাঁর ব্যবহৃত মোবাইল ফোন থেকে কেশবপুরে অবস্থানরত তাঁর এক ভাগ্নের মোবাইলে কয়েকবার মিসকল আসে। ফিরতি ফোন দিলে ওপার থেকে হ্যালো হ্যালো ছাড়া কোনো কথা শোনা যায়নি। এরপর একটি মোবাইল থেকে ওই ভাগ্নের কাছে ফোন দিয়ে তাঁর মামার জন্য দেড় লাখ টাকা দাবি করা হয়। এ জন্য ওই রাতে টাকা পাঠাতে কয়েকটি নম্বরও সরবরাহ করা হয়। তাদের দেওয়া বিভিন্ন নম্বরে পরদিন দেড় লাখ টাকা সরবরাহ করা হয়। কিন্তু কথামতো তাঁকে ছাড়া হয়নি। তারা আর ওই সব নম্বরে ফোন দিলেও রিসিভ করেনি। দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে তাদের মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। এ খবর লেখা পর্যন্ত আবু বকর আবুর মোবাইল ফোনটি বন্ধ রয়েছে এবং তাঁর কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

আবু বকর আবুর ছোট বোন আঞ্জুমানারা বলেন, ‘আমার ভাই কেশবপুরের বিএনপি নেতাদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়েছিল।’

ঢাকায় অবস্থানরত কেশবপুর পৌর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক মেয়র আব্দুস সামাদ বিশ্বাস বলেন, আবু বকর আবু নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি ঢাকার র‌্যাব ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে অবহিত করা হয়েছে।



মন্তব্য