kalerkantho


সড়কে ছয় জেলায় ঝরল ছয় প্রাণ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



সড়কে ছয় জেলায় ঝরল ছয় প্রাণ

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ, সিলেটের বিয়ানীবাজার, চুয়াডাঙ্গার জীবননগর, যশোরের মণিরামপুর, বরগুনার পাথরঘাটা ও গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে কমলগঞ্জে ট্রাকের নিচে প্রাণ গেছে এক তরুণীর। বিয়ানীবাজারে এক বৃদ্ধ মারা গেছেন। শ্যালো ইঞ্জিনচালিত গাড়ির (আলম সাধু নামে পরিচিত) এক যাত্রী মারা গেছে জীবননগরে। একই গাড়ি উল্টে মণিরামপুরেও মারা গেছে একজন। গোপালগঞ্জে এক ব্যক্তি মারা গেছে রাস্তা পার হতে গিয়ে। আর ভ্যানের নিচে চাপা পড়ে পাথরঘাটায় মৃত্যু হয়েছে একজনের। প্রতিনিধিদের খবরে বিস্তারিত—

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি জানান, মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে আফিয়া বেগম (২১) নামে এক তরুণীর মৃত্যু হয়। ঘটনাটি ঘটে শমসেরনগর-শ্রীমঙ্গল সড়কের ইটখোলা এলাকায়। আফিয়া কুলাউড়া উপজেলার হাজীপুর ইউনিয়নের পালকিরপাড় গ্রামের তজমুল আলীর মেয়ে। কমলগঞ্জ থানার এএসআই হামিদুর রহমান বলেন, ‘কেউ কেউ ঘটনাটিকে আত্মহত্যা বলছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।’

বিয়ানীবাজার (সিলেট) প্রতিনিধি জানান, জলঢুপ-কানলী সড়কে গত বুধবার রাতে সড়ক দুর্ঘটনায় ফখর উদ্দিন (৭০) নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। তিনি বড়লেখার শাহবাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য। স্থানীয় লোকজনের ধারণা, কোনো ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার সঙ্গে তাঁর মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগলে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। তাঁর মাথায় আঘাত লেগেছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মোটরসাইকেলের সামনের অংশ।

জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি জানান, উপজেলার মনোহরপুরে বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে শ্যালো ইঞ্জিনচালিত গাড়ির এক যাত্রীর মৃত্যু হয়। তাঁর নাম জুয়েল। তিনি দামুড়হুদা উপজেলার বাসিন্দা। এ ঘটনায় আলম সাধুর চালকও আহত হয়েছে। গতকাল দুপুর দেড়টার দিকে জীবননগর-চুয়াডাঙ্গা মহাসড়কের মনোহরপুর বয়ারগাড়ী মাঠ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি জানান, সেখানে আলম সাধু উল্টে চালক শামিম হোসেনের (১৭) মৃত্যু হয়। সে উপজেলার তেতুলিয়া গ্রামের নূর আলমের ছেলে। স্থানীয় লোকজন জানায়, গত বুধবার সন্ধ্যায় আলম সাধু নিয়ে শামিম বাড়ি ফিরছিল। কিন্তু যশোর-সাতক্ষীরা মহাসড়কের বিজয়রামপুর খইতলা মোড় এলাকায় আলম সাধুটি উল্টে গেলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, সেখানে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তাঁর পরিচয় তাত্ক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। বয়স আনুমানিক ৫০ বছর। গতকাল ভোরে সদর উপজেলার গোপীনাথপুরে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তি মানসিক ভারসাম্যহীন বলে পুলিশের ধারণা। ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ওসি মাহুফুজুর রহমান জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি জানান, সেখানে গতকাল ইঞ্জিনচালিত ভ্যানের নিচে চাপা পড়ে মো. মিজানুর রহমান (৩৫) নামে এক মৎস্য ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়। সকাল ১১টার দিকে উপজেলার কাকচিড়া-লেমুয়া সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মিজানুর রহমান উপজেলার কালমেঘা ইউনিয়নের ঘুটাবাছা গ্রামের বাসিন্দা।

 

 



মন্তব্য