kalerkantho


আদালতের আদেশ ন্যায়বিচারের পরিপন্থী : ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘কারাগারের অভ্যন্তরের আদালত আদেশ দিয়েছেন, এখন থেকে খালেদা জিয়ার মামলা শুনানি তাঁর অনুপস্থিতিতেই হবে। এই আদেশ ন্যায়বিচারের পরিপন্থী, মৌলিক অধিকারের পরিপন্থী। কারাগারের মধ্যে আদালত নিয়ে আজকে এই বেআইনি আদেশ দিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে এ মামলা পরিচালনা করা হচ্ছে। আমরা এই আদেশ মেনে নিতে পারছি না এবং জনগণ তা গ্রহণ করছে না। আমরা মনে করি, এই আদেশ পরিবর্তন হওয়া উচিত।’

গত শুক্রবার দুপুরে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ফখরুল এ কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে একজন নাগরিক হিসেবে সংবিধানসম্মতভাবে যেটা তাঁর প্রাপ্য সেভাবে তাঁকে সুযোগগুলো দেওয়া উচিত বলে আমরা বিশ্বাস করি। দেশনেত্রী অত্যন্ত অসুস্থ। বিচার বিভাগের কাছে আমরা আহ্বান জানাতে চাই, ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করার জন্য দেশনেত্রীর এই শুনানি বন্ধ করে তাঁর সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করা প্রয়োজন।’

তিনি বলেন, ‘দুর্ভাগ্য হলো আজকে বিচারব্যবস্থা বিশেষ করে নিম্ন আদালত সম্পূর্ণভাবে সরকারের করায়ত্ব হতে চলেছে। এই বিচারব্যবস্থা সরকারের করায়ত্বের ফলে আজকে দেশের মানুষ ন্যায়বিচার পাচ্ছে না। দেশনেত্রীর  মামলার শুনানি এক সপ্তাহে তিন দিন তারিখ দেওয়া হয়েছে। এত তাড়া কেন? সরকারের তাড়া আমরা বুঝতে পারি, তারা চায় যত দ্রুত খালেদা জিয়াকে আটকে রাখার ব্যবস্থা করার। কিন্তু আদালতের কাছ থেকে এটা আমরা প্রত্যাশা করি না, জনগণও প্রত্যাশা করে না। গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের যেভাবে আদালত চলা উচিত সেভাবে চালাবেন।’



মন্তব্য