kalerkantho


ভারি বর্ষণ হতে পারে আজও

পদ্মা মেঘনা যমুনায় পানি বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় হালকা থেকে মাঝারি এবং কোথাও কোথাও ভারি বর্ষণের খবর মিলেছে। মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকায় আজ শুক্রবারও দেশের অধিকাংশ স্থানে বৃষ্টিপাত হওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। এর মধ্যে রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে ভারি বৃষ্টিপাত হতে পারে।

অন্যদিকে যমুনা, পদ্মা ও মেঘনার পানি সমতলে বাড়ছে বলে জানিয়েছে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র। আগামী ৭২ ঘণ্টা পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে। প্রধান প্রধান নদ-নদীগুলোতে পানি বাড়ায় বগুড়া, সুনামগঞ্জ ও সিলেট জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হতে পারে।

কেন্দ্রের তথ্য মতে, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্য সিকিম, আসাম, মেঘালয় ও ত্রিপুরায় উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছে। এর মধ্যে চেরাপুঞ্জিতে ১২৬ ও জলপাইগুড়িতে ৮৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুজ্জামান ভুঁইয়া জানান, তাঁদের পর্যবেক্ষণে থাকা ৯৪টি সমতল স্টেশনের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ৭৪টি স্টেশনে পানি বেড়েছে। কমেছে ১৮টি স্টেশনে। অপরিবর্তিত রয়েছে একটি নদীর পানি।

আবহাওয়া অফিসের দেওয়া তথ্য মতে, গতকাল ঢাকায় ১৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। এ ছাড়া কুতুবদিয়ায় ৭১ ও কক্সবাজারে ৬৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। আবহাওয়া কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান কালের কণ্ঠকে জানান, মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আজ অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে। কোথাও কোথাও ভারি বর্ষণের সম্ভাবনাও রয়েছে।

পূর্বাভাসে আরো বলা হয়, মৌসুমি বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।



মন্তব্য