kalerkantho


রূপপুর বিদ্যুেকন্দ্র নিয়ে আগ্রহী মেলার দর্শনার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সপ্তাহ ২০১৮ উপলক্ষে আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় আয়োজিত মেলায় দর্শনার্থীদের ব্যাপক আগ্রহ দেখা গেছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্র নিয়ে। গতকাল শনিবার ছিল তিন দিনের এ মেলার শেষ দিন। দর্শকরা ঘুরে ঘুরে দেখেছে বিভিন্ন স্টল। খোঁজ নিয়েছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির নানা বিষয়ে।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে এ মেলায় রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্রের ওপর একটি আকর্ষণীয় প্যাভিলিয়ন স্থাপন করে। তিন দিনে দুই হাজারের বেশি দর্শনার্থী এটি পরিদর্শন করে।

ঈশ্বরদীর রূপপুরে নির্মীয়মান পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্রে যে শীতলীকরণ টাওয়ার স্থাপিত হবে তার আদলে মেলার প্যাভিলিয়ন নির্মাণ করা হয়। বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন ও রুশ রাষ্ট্রীয় পরমাণু শক্তি করপোরেশন (রসাটম) দর্শনার্থীদের জন্য বিভিন্ন শিক্ষা ও বিনোদনমূলক কর্মসূচি আয়োজন করেছিল। এর মধ্যে ছিল পরমাণু শক্তি বিষয়ে প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন, ভিডিও গেমস, কুইজ প্রতিযোগিতা ইত্যাদি। দর্শনার্থীদের মধ্যে পরমাণু শক্তি বিষয়ে বিভিন্ন বাংলা লিফলেট ও পুস্তিকা বিতরণ করা হয়। দর্শনার্থীদের বিভিন্ন প্রশ্নের দেন প্যাভিলিয়নসংশ্লিষ্টরা।

রাশিয়ার প্রযুক্তি ও আর্থিক সহায়তায় পাবনা জেলার রূপপুরে নির্মিত হচ্ছে দেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্র। দুই ইউনিটের এই বিদ্যুেকন্দ্রটিতে স্থাপিত হচ্ছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ভিভিইআর ১২০০ রিঅ্যাক্টর, যা আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি এজেন্সির (আইএইএ) নির্ধারিত সব ধরনের নিরাপত্তা চাহিদা পূরণে সক্ষম। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্রে প্রতিটি ইউনিটের উৎপাদন ক্ষমতা হবে এক হাজার ২০০ মেগাওয়াট।

 

 



মন্তব্য