kalerkantho


সৈয়দপুরে অপহরণ করতে নাটকের শুটিং আটক ১

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



নাটকের শুটিং হবে। সৈয়দপুরে ১০ মিনিট, দিনাজপুর কারাগারের সামনে ১০ মিনিটসহ বেশ কয়েক জায়গায় শুটিং হবে। নায়কের ছোট ভাইকে অপহরণ করার দৃশ্য ধারণ করা হবে—এভাবেই পরিকল্পনা করে আড়াই হাজার টাকায় প্রাইভেট কার ভাড়া নেন অপহরণের মূল পরিকল্পনাকারী ‘নায়ক’ ফয়সাল (১৮)। তবে কারচালকের সাহসী পদক্ষেপে রক্ষা পায় অপহৃত স্কুলছাত্র আমান (১৪)। আটক করা হয় ফয়সালকে।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সৈয়দপুর শহরের বাইপাস সড়কের বসুনিয়াপাড়া মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আমানের বড় ভাই আরমান বাদী হয়ে সৈয়দপুর থানায় একটি মামলা করেছেন।

আমান স্থানীয় সাহেবপাড়া হানিফ মোড় এলাকার মৃত জব্বার আলীর ছেলে। সে রেলওয়ে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র। আমান জানায়, গতকাল দুপুরের দিকে ফয়সালের পাঠানো তিন যুবক তার কাছে এসে আকাশ নামে তার এক সহপাঠীর ঠিকানা জানতে চায়। সে ঠিকানা দিয়ে চলে যেতে চাইলে তাকে বাড়ি চিনিয়ে দিতে বলে। পরে চালক পরিচিত হওয়ায় আমান গাড়িতে ওঠে। এ সময় অপহরণকারীরা চালক এনামুল হককে (২৮) আকাশদের বাড়ি রসুলপুরের দিকে না গিয়ে অন্য রাস্তায় যেতে বলে। এতে চালকের সন্দেহ হওয়ায় অপহরণকারীরা জানায়, একটি নাটকের শুটিং হবে এবং নায়কের ভাইকে অপহরণ করা হবে। এ দৃশ্য ধারণ করা হবে কয়েক জায়গায়। এ সময় গাড়ির চালক ক্যামেরাসহ অন্যান্য মালামাল দেখতে চাইলে অপহরণকারীরা আমানের পা বাঁধার চেষ্টা করে। তখন চালক বাইপাস সড়কের বসুনিয়াপাড়া মোড়ে গাড়ির স্টার্ট বন্ধ করে নিচে নেমে পড়েন। তখন আমানও গাড়ি থেকে নেমে রক্ষা পায়। তিন অপহরণকারীও পালিয়ে যায়।

আমানের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ সাহেবপাড়া এলাকা থেকে মূল পরিকল্পনাকারী ফয়সালকে আটক করেছে। সৈয়দপুর থানায় ওসি মো. শাহাজাহান পাশা বলেন, ‘ফয়সাল ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।’

 

 



মন্তব্য