kalerkantho


ডায়াবেটিক সমিতির সেবা দিবস পালন

ডা. ইব্রাহিম তাঁর জীবন উৎসর্গ করেছেন মানুষের সেবায়

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহিম তাঁর জীবন উৎসর্গ করেছিলেন মানুষের সেবায়। তাঁর আদর্শ ও লক্ষ্য ছিল—‘কোনো ডায়াবেটিক রোগী দরিদ্র হলেও বিনা চিকিৎসায়, অনাহারে, বেকার অবস্থায় মারা যাবে না। তিনি এ লক্ষ্য বাস্তবায়নের জন্য আমৃত্যু কাজ করে গেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা জাতীয় অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহিমের ২৯তম মৃত্যুবার্ষিকী ও ডায়াবেটিস সেবা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণসভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

সমিতির সভাপতি অধ্যাপক এ কে আজাদ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। বিশেষ অতিথি ছিলেন ওয়ার্ল্ড ডায়াবেটিক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. অনীল কাপুর। 

স্মরণসভায় স্মৃতিচারণা করেন সাবেক সচিব ও সাবেক তথ্য কমিশনার মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আবু তাহের, বাডাস-এর আজীবন সদস্য স্থপতি শাহ আলম জাহিরউদ্দিন। এ ছাড়া সমিতির মহাসচিব মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, বারডেম জেনারেল হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক জাফর এ লতিফ ও ন্যাশনাল কাউন্সিল সদস্য মাহবুব-উজ-জামানসহ অন্যরা বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠান শেষে ‘স্বাস্থ্যসেবায় ডা. মো. ইব্রাহিমের অবদান’ শীর্ষক রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এ ছাড়া একই দিনে সেবা দিবস উপলক্ষে সমিতির তিনটি সেবা প্রকল্পের আওতায়ও দেশব্যাপী ডায়াবেটিক রোগীদের ডিজিটাল নিবন্ধন, গর্ভধারণ-পূর্ব সেবা প্যাকেজ ও ইব্রাহিম হেলথ লাইনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে সমিতি এবং এর সব অঙ্গ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সকাল ৮টায় বনানী কবরস্থানে মরহুমের কবর জিয়ারত ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ ছাড়া সকাল ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত সমিতি, বারডেম, এনএইচএন ও এইচসিডিপির উদ্যোগে রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় বিনা মূল্যে ডায়াবেটিস নির্ণয়ের ব্যবস্থা করা হয়। পাশাপাশি বারডেম মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় ডায়াবেটিক রোগী ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মধ্যে আলোচনা ও প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান। বাদ আসর বারডেম বহির্বিভাগে এক দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। সমিতির অপর প্রতিষ্ঠান ইব্রাহিম কার্ডিয়াক হসপিটাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট এ উপলক্ষে ‘ফ্রি হার্ট ক্যাম্প’-এর আয়োজন করে।

 

 



মন্তব্য