kalerkantho


ঝোড়ো বাতাসে উত্তাল পদ্মা

দুই নৌপথে বন্ধ লঞ্চ চলাচল

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



দুই নৌপথে বন্ধ লঞ্চ চলাচল

ঝোড়ো বাতাসে উত্তাল হয়ে উঠেছে পদ্মা। এর ফলে গতকাল বৃহস্পতিবার ব্যস্ততম দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ও শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌপথে সব ধরনের লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডাব্লিউটিএ)। তবে ধীরগতিতে চলছে ফেরিগুলো। এর ফলে ঘাটে ঘাটে দেখা দিয়েছে গাড়ির জট। লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ থাকায় ফেরিগুলোতে বেড়েছে যাত্রীর চাপ। এ ব্যাপারে আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) : বৈরী আবহাওয়ার কারণে গতকাল বিকেল ৪টা থেকে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে সব ধরনের লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এ সময় উভয় ঘাটে আসা শত শত যাত্রী ফেরি দিয়ে নদী পার হয়। বিআইডাব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আবহাওয়া স্বাভাবিক হওয়ার পর লঞ্চ সার্ভিস ফের চালু করা হবে।

দৌলতদিয়া লঞ্চঘাট অফিস সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে রাজধানী ঢাকার সড়ক যোগাযোগে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের শিবালয়ের পাটুরিয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ নৌপথ। প্রতিদিন এ পথে হাজার হাজার যাত্রী লঞ্চ পারাপার হয়। এদিকে গতকাল ভোর থেকে নদী অববাহিকায় বাতাস বইতে থাকে। সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে বাতাসের গতি বেড়ে যায়। এতে প্রবল স্রোতের পাশাপাশি বড় বড় ঢেউয়ের ফলে পদ্মার পানি উত্তাল হয়ে ওঠে। এ পরিস্থিতিতে নৌ চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ায় বিকেল ৪টা থেকে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেয় বিআইডাব্লিউটিএ।  বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডাব্লিউটিএ) আরিচা নদীবন্দরের নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী পরিচালক মো. ফরিদুল ইসলাম বলেন, ‘আবহাওয়া পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে পুনরায় লঞ্চ সার্ভিস চালু করা হবে।’

শিবচর (মাদারীপুর) : পদ্মা উত্তাল হয়ে ওঠায় দুর্ঘটনা এড়াতে গতকাল সকাল পৌনে ১০টা থেকে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌপথে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ রয়েছে। লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ থাকায় ফেরিতে ছিল যাত্রীর চাপ। উত্তাল পদ্মায় ফেরি চলাচলও ব্যাহত হচ্ছে। এতে উভয় পাড়ে যাত্রী দুর্ভোগ চরম আকার ধারণ করেছে। বিআইডাব্লিটিএ ও বিআইডাব্লিউটিসি কাঁঠালবাড়ী ঘাট সূত্র জানায়, পদ্মা উত্তাল থাকায় ফেরিগুলো ধীরে ধীরে সতর্কতার সঙ্গে চলাচল করছে। কাঁঠালবাড়ী ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া প্রতিটি ফেরি ছিল যাত্রীতে কানায় কানায় পূর্ণ।



মন্তব্য