kalerkantho


না.গঞ্জে পুড়িয়ে হত্যা

‘মৃত্যুর আগে জানিয়ে গেলেন চারজনের নাম’

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জ সদরের ফতুল্লায় সুমন মিয়া (৩৭) নামের এক ব্যবসায়ীকে গায়ে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে। পাওনা টাকা নিয়ে বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মৃত্যুর আগে সুমন তাঁর গায়ে আগুন দেওয়া চার ব্যক্তির নাম প্রকাশ করেছেন, যা ভিডিও করে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে পরিবারের সদস্যরা।

গত শুক্রবার রাতে ফতুল্লার পশ্চিম মাসদাইর এলাকায় সুমনের গায়ে আগুন দেওয়া হয়। পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল শনিবার সকালে তাঁর মৃত্যু হয়।

নিহত সুমন মিয়া পশ্চিম মাসদাইর এলাকার আব্দুল জলিলের ছেলে। তিনি গার্মেন্টের ঝুট ব্যবসায়ী ছিলেন। সুমনের স্ত্রী সোমা আক্তার পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। এ ছাড়া সিয়াম নামের আট বছরের একটি ছেলে রয়েছে তাঁদের। চার ভাই-বোনের মধ্যে সুমন ছিলেন সবার বড়।

মৃত্যুর আগে সুমনের দেওয়া বক্তব্যের বরাত দিয়ে তাঁর বোন সোনিয়া আক্তার জানান, স্থানীয় বিপ্লব ও সোহেল মণ্ডল কয়েক মাস আগে সুমনের কাছ থেকে ৭০ হাজার টাকা করে দুজন এক লাখ ৪০ হাজার টাকা ধার নেয়। এক মাস পর ওই টাকা ফেরত দেওয়ার কথা থাকলেও তারা সুমনকে উল্টো নানাভাবে হয়রানি করছিল। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বিপ্লব টাকা দেওয়ার কথা বলে মোবাইল ফোনে সুমনকে তাদের বাসায় ডেকে নেয়।

 

 



মন্তব্য