kalerkantho


গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে এক হতে হবে : ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘রাষ্ট্র আজ অপশক্তির কাছে বন্দি। তাই রাষ্ট্রকে উদ্ধার করতে হবে। সকলকে ঐক্যবদ্ধ করে আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে। এই হলো আজকের দিনের শপথ।’ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার রাজধানীর গুলশানে দলীয় চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে আয়োজিত এক শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

হিন্দু সম্প্রদায়ের সদস্যদের জন্মাষ্টমীর শুভেচ্ছা জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আজকে দেশে যে পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে সে জন্য শ্রীকৃষ্ণকে বেশি মনে পড়ে, ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে আজ বেশি করে স্মরণ করতে হয়। তিনি সব সময় অন্যায়ের বিরুদ্ধে, অসত্যের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করেছেন, লড়াই করেছেন, নেতৃত্ব দিয়েছেন। এই কথা যেন সবাই সব সময় মনে রাখি।’

অন্যায়ভাবে খালেদা জিয়াকে কারাগারে বন্দি করে রাখা হয়েছে বলে দাবি করেন ফখরুল। তিনি বলেন, ‘এই ফ্যাসিবাদকে পরাজিত করতে পারলেই দেশনেত্রী মুক্ত হবেন, গণতন্ত্র ফিরে আসবে, তারুণ্যের নেতা তারেক রহমান ফিরে আসবেন।’

হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান কল্যাণ ফ্রন্টের উদ্যোগে শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ফ্রন্টের আহ্বায়ক গৌতম চক্রবর্তী। অমলেন্দু দাশ অপুর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা বিজন কান্তি সরকার, কেন্দ্রীয় নেতা জয়ন্তু কুমার কুণ্ড, অপর্ণা রায়, দেবাশীষ রায় মধু, নিপুন রায় চৌধুরী, রমেশ দত্ত, নকুল সাহা, জয়দেব জয়, সঞ্জিত কুমার দেব জনিসহ হিন্দু বৌদ্ধ-খ্রিস্টান কল্যাণ ফ্রন্টের নেতারা।

রামকৃষ্ণ মিশনের মৃদুল মহারাজ ও স্বামীবাগ ইসকন মন্দিরের প্রভু নিত্যানন্দ অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন।

উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অধ্যাপক সুকোমল বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় নেতা অ্যালবার্ট পি কষ্টা, দীপেন দেওয়ান, সুশীল বড়ুয়া, তপন মজুমদার প্রমুখ।



মন্তব্য