kalerkantho


বাংলাদেশ স্পেশাল অলিম্পিকস টিমের পাশে বসুন্ধরা গ্রুপ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



বাংলাদেশ স্পেশাল অলিম্পিকস টিমের পাশে বসুন্ধরা গ্রুপ

বসুন্ধরা ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেড কোয়ার্টার্স-১ এ গতকাল স্পেশাল অলিম্পিকস বাংলাদেশ-এর পরিচালক ও প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আশরাফ দৌলার হাতে ৩০ লাখ টাকার চেক তুলে দেন বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর। ছবি : কালের কণ্ঠ

শিকাগো ইউনিফায়েড ওয়ার্ল্ড কাপ স্পেশাল অলিম্পিকসে অংশ নিতে বাংলাদেশ স্পেশাল অলিম্পিকস টিমের পাশে দাঁড়িয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপ। বসুন্ধরা গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় শিকাগো ইউনিফায়েড ওয়ার্ল্ড কাপ ফুটবলে অংশ নিতে পারছে দেশের কৃতি স্পেশাল খেলোয়াড়রা।

আর্থিক সংকটের মুখে বাংলাদেশ স্পেশাল অলিম্পিকস দলের শিকাগো যাওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়লে ওই টিম ম্যানেজমেন্ট বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের সহায়তা কামনা করে। এতে সাড়া দিয়ে তিনি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার স্পেশাল অলিম্পিকস বাংলাদেশের পরিচালক ও প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আশরাফ দৌলার হাতে ৩০ লাখ টাকার চেক তুলে দেন বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীর।

বসুন্ধরা ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেডকোয়ার্টার্স-১-এ এই চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, নিউজটোয়েন্টিফোর ও রেডিও ক্যাপিটালের প্রধান নির্বাহী (সিইও) এবং বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম, ডেইলি সান সম্পাদক এনামুল হক চৌধুরীসহ অন্যরা।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী ক্রীড়াবিদদের নিয়ে গঠিত স্পেশাল অলিম্পিকস বাংলাদেশের সাফল্য দীর্ঘদিনের। এ টিমের সদস্যরা ১৯৯৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ হ্যাভেনে অনুষ্ঠিত স্পেশাল অলিম্পিকস ওয়ার্ল্ড গেমসে ছয়টি স্বর্ণ, সাতটি রৌপ্য ও সাতটি ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে। পরের বছর চীনের সাংহাইয়ে অনুষ্ঠিত এশিয়া প্যাসিফিক গেমসে ছয়টি স্বর্ণসহ ১৬টি পদক লাভ করে তারা। ২০০৭ সালে সাংহাইয়ে অনুষ্ঠিত স্পেশাল অলিম্পিকসে ৩২টি স্বর্ণসহ ৭১টি পদক, ২০১১ সালে এথেন্সে অনুষ্ঠিত স্পেশাল অলিম্পিকস ওয়ার্ল্ড গেমসে ৩৫টি স্বর্ণসহ ৫৮টি পদক, ২০১৩ সালে অস্ট্রেলিয়ার নিউক্যাসেলে এশিয়া প্যাসিফিক গেমসে ৩৫টি স্বর্ণসহ ৫৬টি পদক অর্জন করে। ফুটবলেও এ টিমের সদস্যরা ৯টি আন্তর্জাতিক আসরে চ্যাম্পিয়ন ও তিনটি আসরে রানার্স-আপ হয়েছে।



মন্তব্য