kalerkantho


নারী ক্রিকেটারদের এশিয়া কাপ জয়

শেরপুরবাসী গর্বিত জ্যোতির কৃতিত্বে

শেরপুর প্রতিনিধি   

১১ জুন, ২০১৮ ০০:০০



নারী এশিয়া কাপ ক্রিকেটে বাংলাদেশের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পেছনে অন্যতম কারিগর শেরপুরের মেয়ে নিগার সুলতানা জ্যোতি। গতকাল রবিবারের ফাইনাল খেলায় ভারতের বিপক্ষে জ্যোতি ২৪ বলে ২৭ রান করেন, যা ছিল এদিন দলের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ সংগ্রহ। তাঁর এ ইনিংসের ওপর ভর করেই কুয়ালালামপুরের কিনরারা একাডেমি ওভাল স্টেডিয়ামে সগৌরবে উড়ল বাংলাদেশের পতাকা। আর এতেই এশিয়া কাপের ছয়বারের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ে বাংলাদেশের মেয়েরা।

ক্রিকেটের বৈশ্বিক পর্যায়ে যেকোনো দলের ক্ষেত্রে এ শিরোপা সবচেয়ে বড় অর্জনও বটে। আর স্বভাবতই শেরপুরের মেয়ে নিগার সুলতানা জ্যোতির এমন কৃতিত্বে গর্বিত শেরপুরবাসী। ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট দলকে অভিনন্দনের পাশাপাশি জ্যোতি-বন্দনা।

১৯৯৭ সালের ১ আগস্ট শেরপুর শহরের রাজবল্লভপুর এলাকায় জন্মগ্রহণকারী নিগার সুলতানা জ্যোতি বাংলাদেশ প্রমিলা ক্রিকেট দলের এখন অন্যতম ভরসার নাম। দলে তিনি মূলত উইকেটকিপারের দায়িত্ব পালন করেন। পাশাপাশি ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবেও দলে ভূমিকা রাখছেন। ২০১৫ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পাকিস্তানের বিপক্ষে করাচিতে টি-২০ এবং একই দলের বিপক্ষে ৬ অক্টোবর ওয়ানডে অভিষেক হয় তাঁর। অভিষেক ম্যাচেই তিনি সবার নজর কাড়েন। ২০১৬ সালে আইসিসির চোখে সেরা পাঁচ উদীয়মান তারকার স্বীকৃতি পান বাংলাদেশি এ প্রমিলা ক্রিকেটার।

 



মন্তব্য