kalerkantho


চায়নিজ ‘সেং ফু থেরাপি’

১৭ মে, ২০১৮ ০০:০০



চায়নিজ ‘সেং ফু থেরাপি’

চায়নিজ মেডিসিন কী বলে?

মাথার পেছনে যেখানে খুলি ও ঘাড় মিলেছে, সেখানে গর্তের মতো একটা ‘স্পট’ আছে। চায়নিজ মেডিসিনের ভাষায় একে বলে ‘সেং ফু’ বা ‘বাতাসের কুঠুরি’। বিভিন্ন স্বাস্থ্যগত সমস্যার সঙ্গে জড়িত সেং ফু। নানা ঘরানার থেরাপিস্টদের কাছে এটি এক গুরুত্বপূর্ণ ‘স্পট’। 

বরফ থেরাপি

এ কাজে একটা ছোট আকারের আইসব্যাগ দরকার। এক টুকরা বরফ হলেও চলবে। সেটিকে কাপড়ে মুড়ে নিতে হবে। সোজা উপুড় হয়ে শুয়ে পড়ুন। এবার বরফের টুকরাটা সেং ফু পয়েন্টে ২০ মিনিট ধরে রেখে দিন। আইসব্যাগ হলে সেং ফুর ওপর বসিয়ে দিন। খুব দ্রুত সেখানে বরফের শীতলতা অনুভব করবেন। কিন্তু সরাবেন না। মাত্র ৩০-৪০ সেকেন্ডের মধ্যে বুঝতে পারবেন যে তাপমাত্রা বাড়ছে। আর অসুবিধা হবে না। বরফের এ থেরাপি ‘সেং ফু থেরাপি’ নামেও ব্যাপক পরিচিত।

নিয়মিতভাবে এ থেরাপি দিলে দেহ উজ্জীবিত হয়ে ওঠে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে এবং সুস্থ-সবল থাকা যায়। বলা হয়, সর্বোচ্চ উপকার পেতে সকালে খালি পেটে একবার এবং রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে দ্বিতীয়বার নিতে হবে। মাথাব্যথা, পিএমএস, থাইরয়েড সমস্যা, ঘুম, হজম ও সর্দি সমস্যার সমাধানে ‘সেং ফু থেরাপি’ ব্যাপক কার্যকর।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে সাকিব সিকান্দার



মন্তব্য