kalerkantho


দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৩

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৭ মে, ২০১৮ ০০:০০



ফেনী, নারায়ণগঞ্জ ও ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে  ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিনজন নিহত হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাতে ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার খুশিপুর ব্রিজসংলগ্ন স্থানে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মুছা আলম মাসুদ (৩০) নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশের চার সদস্য আহত হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। মুছা আলম মাসুদ একাধিক ধর্ষণ মামলার আসামি।

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় পুলিশের অস্ত্র খোয়া মামলার আসামি বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। তার নাম পারভেজ (৩০)। ঘটনাস্থল থেকে দুই রাউন্ড গুলিভর্তি একটি রিভলবার ও তিনটি বড় ছোরা উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের বারইহাটি বটতলা এলাকায় ডিবি পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে আন্তজেলা ডাকাত সর্দার আজিজুল (৩২) নিহত হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ৩টার দিকে এ বন্দুকযদ্ধের ঘটনা ঘটে। বিস্তারিত আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে—

ফেনীর ঘটনায় পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার একাধিক ধর্ষণ মামলার আসামি মুছা আলম মাসুদ খুশিপুরে অবস্থান করছে। এমন সংবাদ পেয়ে সেখানে অভিযান চালায় পুলিশ। কিন্তু আগে থেকে ওত পেতে থাকা মাসুদ ও তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশ আত্মরক্ষায় পাল্টা গুলি ছুড়লে মুছা আলম মাসুদ গুলিবিদ্ধ হয়। এরপর গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে দাগনভূঞা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নারায়ণগঞ্জের ঘটনায় পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাত ২টায় আলামিন এলাকায় ছিনতাইকারীদের দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলির খবর পেয়ে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের একটি টিম সেখানে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হয়। পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে পারভেজ বন্দুকযুদ্ধে মারা যায়।

ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার রাতে ডিবি পুলিশের একটি দল গফরগাঁও উপজেলায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় পুলিশ জানতে পারে বারইহাটি বটতলা এলাকায় আরজ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে পাকা সড়কে গাছের গুঁড়ি ফেলে একদল ডাকাত ডাকাতি করছে। পরে ডিবি পুলিশ পাগলা থানা-পুলিশকে জানায়। এরপর ঘটনাস্থলে গিয়ে গাড়ি থেকে নেমে সড়কে ফেলে রাখা গাছের গুঁড়ি সরাতে শুরু করে। এ সময় ডাকাতদল ডিবি পুলিশের ওপর হামলা করে। পরে ডিবি ও পাগলা থানা পুলিশের সঙ্গে ডাকাতদলের বন্দুকযুদ্ধ হয়। এতে আজিজুল ডাকাত গুলিবিদ্ধ হয়। পরে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক ওই ডাকাতকে মৃত ঘোষণা করেন।



মন্তব্য