kalerkantho


কুমিল্লায় ধর্ষণের পর শিশুকে কুপিয়ে হত্যা

কুমিল্লা দক্ষিণ প্রতিনিধি   

৬ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার হাতিমারা গ্রামে ১০ বছরের একটি শিশুকে ধর্ষণের পর এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। তার নাম শিমু আক্তার। গতকাল সোমবার দুপুরে নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। বিকেল ৩টার দিকে শিশুটির রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। শিমু গ্রামের কৃষক সাইদুল হকের মেয়ে এবং স্থানীয় হাতিমারা মাদরাসার প্রথম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। 

কে বা কারা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ। পরিবারের সদস্যরাও বুঝতে পারছে না। তবে ধর্ষণের পর শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। গতকাল সন্ধ্যায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল। 

স্থানীয় উত্তর হাওলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল হান্নান হিরন জানান, হাতিমারা গ্রামের পূর্ব-উত্তর পাশের ফসলের মাঠের মধ্যখানে কৃষক সাইদুল হকের বাড়ি। এক সপ্তাহ আগে তাঁর স্ত্রী রাবেয়া বেগম সিলেটে বেড়াতে যান। গতকাল সকালে সাইদুল মাঠে কৃষিকাজে বাড়ি থেকে বের হন। এ সময় তিনি মেয়েকে বলে যান, ‘পুরো বাড়ি যেহেতু খালি তুই নানার বাড়িতে চলে যা।’ শিমুর নানার বাড়ি একই গ্রামে। তাদের বাড়ির কাছাকাছি। দুপুরে মাঠের কাজ শেষে বাড়ি ফিরে নিজ ঘরেই সাইদুল তাঁর মেয়ের রক্তাক্ত লাশ দেখতে পান।



মন্তব্য