kalerkantho


আক্রান্ত জাফর ইকবাল

প্রতিবাদে উত্তাল ঢাকা সিলেট ও শাবিপ্রবি

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট অফিস ও শাবিপ্রবি প্রতিনিধি   

৫ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



প্রতিবাদে উত্তাল ঢাকা সিলেট ও শাবিপ্রবি

ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার প্রতিবাদে গতকাল রংপুরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে বইপড়া কর্মসূচি পালন করে শিক্ষার্থীরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও জনপ্রিয় লেখক মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনায় উত্তাল রাজধানী ঢাকা, সিলেট এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) ক্যাম্পাস। গতকাল রবিবার দিনভর নানা কর্মসূচিতে এ ঘটনায় দায়ীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে। ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছে শাবিপ্রবি কর্তৃপক্ষ। একটি মামলাও দায়ের করা হয়েছে। আগামীকাল মঙ্গলবার মানববন্ধনের ডাক দেওয়া হয়েছে সারা দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে। এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠন।

জাফর ইকবালের ওপর হামলার প্রতিবাদে শাহবাগ প্রজন্ম চত্বরে গতকাল বিকেলে বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে একাধিক বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল বিকেল ৪টায় শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে পৃথক দুটি বিক্ষোভ সমাবেশ হয়। বিক্ষুব্ধ নাগরিক সমাজের ব্যানারে একটি বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন প্রবীণ সাংবাদিক আবেদ খান। এতে গণজাগরণ মঞ্চের (একাংশ) মুখপাত্র কামাল পাশা, শহীদ বুদ্ধিজীবীর সন্তান ডা. নুজহাত চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা বিচ্ছু জালাল প্রমুখ বক্তব্য দেন। এ সমাবেশের সঙ্গে সংহতি জানান প্রজন্ম ৭১ ও শাবিপ্রবির সাবেক শিক্ষার্থীরা।

আরেকটি সমাবেশের ব্যানারে আয়োজক সংগঠনের নাম লেখা না থাকলেও সেটিতে সভাপতিত্ব করেন গণজাগরণ মঞ্চের (একাংশ) মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার। এতে বক্তব্য দেন মানবাধিকারকর্মী সুলতানা কামাল, খুশী কবির, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক আকরাম হোসেন, খান আসাদুজ্জামান মাসুম ও জয়ন্ত কুণ্ডু। জাসদ ছাত্রলীগ, ছাত্র ইউনিয়নসহ বিভিন্ন ছাত্রসংগঠনের প্রতিনিধিরা এ সমাবেশে সংহতি জানান।

সুলতানা কামাল বলেন, ‘জাফর ইকবাল মানুষের মৌলিক অধিকারের পক্ষে কথা বলেন বলেই তাঁর ওপর হামলা হয়েছে। আমরা চাই এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে জড়িতদের শাস্তি দেওয়া হোক।’

সিলেটে বিক্ষোভ মানববন্ধন : ড. জাফর ইকবালকে হত্যাচেষ্টা ঘটনার প্রতিবাদে গতকাল সিলেটে বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে।

প্রগতিশীল রাজনৈতিক দলগুলোর উদ্যোগে বিকেল ৫টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জাসদ সিলেট জেলার সভাপতি লোকমান আহমদ।

হামলার প্রতিবাদে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে মানববন্ধন করেছে সিলেটের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশ নেন।

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়েও এ হামলার প্রতিবাদ ও সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে শিক্ষক সমিতি। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে আয়োজিত এ কর্মসূচিতে শিক্ষার্থীরাও অংশ নেয়।

নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটির শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা গতকাল ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে এ হামলার প্রতিবাদ জানান। প্রতিবাদ মিছিলটি সিলেট শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে তেলিহাওরে ক্যাম্পাসে এসে শেষ হয়।

এ ছাড়া হামলার প্রতিবাদে ওসমানী স্মৃতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি গতকাল নগরে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করে। সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট সিলেট মহানগর শাখার উদ্যোগে বিকেল ৪টায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ হয়েছে।

শাবিপ্রবিতে আজ কর্মবিরতি, মামলা : হামলার প্রতিবাদে গতকাল শাবিপ্রবি ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। পরে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। তারা গণস্বাক্ষর কর্মসূচিও পালন করে। শিক্ষার্থীরা হামলার ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করে। একই দাবিতে আজ সোমবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত কর্মবিরতি পালন করবেন শাবি শিক্ষকরা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা তিন দফা দাবি জানিয়েছে—হামলার ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে সঠিক তথ্য প্রকাশ করতে হবে, জড়িতদের দ্রুত বিচার এবং ক্যাম্পাসের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

একই দাবিতে কর্মসূচি পালন করে ছাত্রলীগ ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট, কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাব, সাংস্কৃতিক সংগঠন শিকড় ও ডিবেটিং সোসাইটি। শিক্ষক সংগঠনগুলোও এ ঘটনার নিন্দা ও জড়িতদের শাস্তি দাবি করেছে।

মামলা : ড. জাফর ইকবালের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। রেজিস্ট্রার ইশফাকুল হোসেন জানান, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক রিতেশ্বর তালুকদারের জবানবন্দির ভিত্তিতে মামলা করা হয়েছে। জালালাবাদ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম জানান, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন মামলা করেছে।

তদন্ত কমিটি : জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির প্রধান হলেন সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. আব্দুল গণি। অন্যরা হলেন রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম ও কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. শহিদুর রহমান।


মন্তব্য