kalerkantho


দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে গোডাউনে আগুন, একজন নিহত

দগ্ধ আরো তিনজন

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে গোডাউনে আগুন, একজন নিহত

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের নতুন রাস্তার মোড় এলাকায় ‘জননী কুরিয়ার সার্ভিসের’ একটি গোডাউনে বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার বিস্ফোরিত হয়ে অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে। এতে ঘটনাস্থলে একজন নিহত ও তিনজন দগ্ধ হয়ে আহত হয়েছে। গত বৃস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম বাবু মিয়া (২৬)। তিনি ওই কুরিয়ার সার্ভিসের কর্মচারী ছিলেন। তাঁর বাড়ি বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ থানার দিশারী খান এলাকায়।

দগ্ধরা হলেন জননী কুরিয়ার সার্ভিসের সহকারী ম্যানেজার মোস্তাফিজুর রহমান (৪২), সুপারভাইজার রফিকুল ইসলাম (২৮) ও কর্মচারী বকুল মিয়া। তাঁদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে দুইজনের অবস্থা গুরুতর।

একই প্রতিষ্ঠানে গত ১০ ফেব্রুয়ারি বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সপ্তাহ পার হতে না হতে আবারও এ ঘটনা ঘটল। এতে প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী ও এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, জননী কুরিয়ার সার্ভিসের অফিসে তাদের নিজস্ব বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার রয়েছে। গত বৃস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ট্রান্সফরমারটি স্পার্ক হয়ে আগুন জ্বলে ওঠে। এরপর গোডাউনে থাকা কাগজপত্র ও কেমিক্যালে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় গোড়াউনে থাকা বাবু, মোস্তাক, রফিকুল ও বকুল অগ্নিদগ্ধ হন। বাকিরা দিগ্বিদিক ছোটাছুটি করে আত্মরক্ষা করে। এর মধ্যে ঘটনাস্থলেই বাবু মারা যান। পরে দগ্ধদের উদ্ধার করে প্রথমে মিটফোর্ড হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার (অপারেশন) কামরুজ্জামান মিঠু জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে গোডাউনের পাশে বৈদ্যুতিক সাবস্টেশনের ট্রান্সফরমার থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। কিছু বুঝে ওঠার আগেই সেখানে রাখা মালামালে আগুন ধরে যায়। এতে বাবু নামের এক কর্মচারী ঘটনাস্থলেই পুড়ে মারা যান।

 

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক মো. মহিদুল ইসলাম জানান, বাবু নামের এক কর্মচারীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। আহতরা ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

সদরঘাট ফায়ার সার্ভিসের ফোরম্যান মো. মোবারক হোসেন জানান, আগুন লাগার খবর পেয়ে আমাদের দুটি ইউনিট প্রায় দুই ঘণ্টা চেষ্টা করে রাত সাড়ে ১২টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। তবে কী পরিমাণ মালামালের ক্ষতি হয়েছে এখনই বলা যাচ্ছে না। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট হয়ে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে।



মন্তব্য