kalerkantho


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সমাবেশ হয়নি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা ও প্রশাসনিক ভবনে ভাঙচুরের ঘটনায় তদন্ত প্রতিবেদনসহ পাঁচ দাবিতে পূর্বঘোষিত ছাত্রসমাবেশ গতকাল বুধবার অনুষ্ঠিত হয়নি। বাংলাদেশ ছাত্রলীগসহ ৯ ছাত্রসংগঠনের জোট ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ এ সমাবেশের আয়োজক ছিল। তবে তা স্থগিত নিয়ে ভিন্ন বক্তব্য দিয়েছে ছাত্রলীগ ও জাসদ ছাত্রলীগ।

ছাত্র সংগ্রামের পরিষদভুক্ত অন্য সাতটি সংগঠন হচ্ছে বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রী, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ (বিসিএল), বাংলাদেশ ছাত্র আন্দোলন, বাংলাদেশ ছাত্র সমিতি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ (বাসদ), জাতীয় ছাত্র ঐক্য ও জাতীয় ছাত্র কেন্দ্র। তাঁদের পাঁচ দাবি হলো, সব ক্রিয়াশীল ছাত্রসংগঠন সঙ্গে নিয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ ও ঘটনায় দোষীদের শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে পরিবেশ পরিষদ চালু করা, অবিলম্বে ডাকসু নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা এবং অধিভুক্ত সাত কলেজ নিয়ে বিরাজমান সমস্যার দ্রুত সমাধান করা।

এসব দাবিতে গত ২৭ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করে সন্ত্রাসবিরোধী ছাত্রসমাবেশের ডাক দেয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১টায় অপরাজেয় বাংলায় এই সমাবেশ হওয়ার কথা থাকলেও সেখানে তাদের কাউকে দেখা যায়নি। তবে তা স্থগিতের বিষয়ে কোনো পূর্বঘোষণা ছিল না।

জানতে চাইলে ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘সিলেটে প্রধানমন্ত্রীর সমাবেশ উপলক্ষে নেতাকর্মীরা ঢাকার বাইরে থাকায় এই সমাবেশ স্থগিত করা হয়েছে।’ তবে শিগগির কর্মসূচির ব্যাপারে জানানো হবে বলে জানান তিনি।  

তবে জাসদ ছাত্রলীগের সভাপতি মুহাম্মদ সামছুল ইসলাম সুমন বলেন, ‘আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে যে দাবিগুলো দিয়েছিলাম তার একটিও মানা হয়নি। তাই আমরা সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশ করব নাকি অন্য কোনো কর্মসূচি করব, এ নিয়ে দ্বিমত তৈরি হওয়ায় সমাবেশ স্থগিত করা হয়েছে।’


মন্তব্য