kalerkantho


চাঁদপুরে গর্ভপাতে মৃত্যু, লাশ গুমের চেষ্টা, আটক ৩

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

২৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



চাঁদপুরের মতলব উত্তরে গর্ভপাতের সময় মারা যাওয়া এক গৃহবধূর লাশ গুম করার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে এক ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। তবে স্থানীয়দের সহযোগিতায় গতকাল সোমবার সেচ খাল থেকে টগি রানী সরকার (৪২) নামের ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত টগি রানী উপজেলার কলাকান্দা গ্রামের ক্ষিতিশ চন্দ্র সরকারের স্ত্রী। এ ঘটনায় পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বড় ষাটনল বেড়িবাঁধের পাশে সেচ খালে গতকাল ভোরে পথচারীরা ওই নারীর লাশ দেখে স্থানীয় ইউপি সদস্যকে জানায়। খবর দিলে মতলব উত্তর থানার ওসি মো. আনোয়ারুল হক গিয়ে ওই লাশ উদ্ধার করেন। পরে ময়নাতদন্তের জন্য গতকাল দুপুরে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে লাশ পাঠানো হয়।

ওই গৃহবধূর স্বামী ক্ষিতিশ চন্দ্র সরকার সাংবাদিকদের জানান, সংসারজীবনে তাঁদের চার সন্তান রয়েছে। দুই মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন। বর্তমানে দুই ছেলে লেখাপড়া করছে। এ অবস্থায় তাঁর স্ত্রীর অনাকাঙ্ক্ষিত গর্ভধারণ হয়। গত রবিবার সকালে গর্ভপাতের জন্য মারিয়া জেনারেল হাসপাতালে যাওয়ার কথা বলে তাঁর স্ত্রী বাড়ি থেকে বের হন। ক্ষিতিশ দাবি করেন, কিন্তু সেখানে ডাক্তার ছাড়াই গর্ভপাত করানো হয়। যে কারণে তাঁর স্ত্রীর মৃত্যু ঘটে। এ অবস্থায় ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ রাতের আঁধারে বড় ষাটনল বেড়িবাঁধের পাশে সেচ ক্যানেলে তাঁর স্ত্রীর লাশ গুমের চেষ্টা চালায়।



মন্তব্য