kalerkantho


টাঙ্গাইলে মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হত্যা মামলা

এমপি রানাকে কোর্টে হাজির করা হয়নি সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি   

২৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



টাঙ্গাইলের এমপি আমানুর রহমান খান রানাকে আদালতে হাজির না করায় গতকাল সোমবার আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি। পরে আদালত আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি সাক্ষ্যগ্রহণের পরবর্তী তারিখ ধার্য করেছেন। এ নিয়ে মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ চতুর্থ দফা পেছাল।

টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতে গতকাল সোমবার সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য ছিল।

টাঙ্গাইলের আদালত পরিদর্শক আনোয়ারুল ইসলাম জানান, ফারুক হত্যা মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের দিন রাষ্ট্রপক্ষ মামলার বাদী নাহার আহমেদ, ছেলে আহমেদ মজিদ সুমন ও মেয়ে ফারজানা আহমেদ মিথুনের হাজিরা দাখিল করে। কিন্তু মামলার মূল আসামি এমপি আমানুর রহমান খান রানা আদালতে উপস্থিত না থাকায় দুই পক্ষের শুনানি শেষে আদালতের বিচারক আবুল মনছুর মিয়া পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের তারিখ ধার্য করেন।

আসামিপক্ষের আইনজীবীরা আদালতকে জানান, মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলার মূল আসামি টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের সরকারদলীয় এমপি আমানুর রহমান খান রানা কাশিমপুর কারাগার থেকে অসুস্থতাজনিত কারণে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ফিস্টুলা অপারেশন, উচ্চরক্তচাপ ও মেরুদণ্ডের ব্যথার কারণে তিনি যাতায়াতে অক্ষম। তাই তাঁকে আদালতে হাজির করা হয়নি।

তবে মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও অতিরিক্ত পিপি মনিরুল ইসলাম খান জানান, এমপি আমানুর রহমান খান রানা অসুস্থতার অজুহাতে আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় মামলার অভিযোগ গঠনের তারিখ ৯ বার পিছিয়ে যায়। একই কারণে সাক্ষ্যগ্রহণের তারিখও চারবার পেছাল।



মন্তব্য