kalerkantho


এমপির ছেলের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক ও সাতক্ষীরা প্রতিনিধি   

২২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



এমপির ছেলের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

রাজধানীর শেরেবাংলানগরের সংসদ সদস্য ভবন (ন্যাম ভবন) থেকে সাতক্ষীরা-১ (তালা-কলারোয়া) আসনের সংসদ সদস্য মুস্তফা লুত্ফুল্লাহর একমাত্র ছেলে অনিক আজিজের (২৫) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার সকালে লাশটি উদ্ধারের পর সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে দাফনের জন্য সাতক্ষীরায় গ্রামের বাড়ি নিয়ে যাওয়া হয়। মুস্তফা লুত্ফুল্লাহ সাতক্ষীরা জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি।

পুলিশ ও ন্যাম ভবনের নিরাপত্তাকর্মীরা জানায়, ৫ নম্বর ভবনের ৬০৪ নম্বর ফ্ল্যাটে থাকতেন মুস্তফা লুত্ফুল্লাহ, ছেলে অনিক আজিজ, আইন পড়ুয়া মেয়ে আদৃতা সৃষ্টি, কাজের মেয়ে ও গাড়িচালক। মুস্তফা লুত্ফুল্লাহ গত বুধবার সাতক্ষীরায় যান। শনিবার রাতে পিএস জাহাঙ্গীরকে নিয়ে তিনি ঢাকায় আসেন। ভোরে বাসায় গিয়ে দেখতে পান অনিকের ঘরের দরজা বন্ধ। এ সময় ডাকাডাকি করেও সাড়াশব্দ না পেয়ে চাবি দিয়ে তালা খুলে ভেতরে ছেলের লাশ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলতে দেখেন। পরে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়। পুলিশ সকাল ৭টার দিকে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

অনিকের চাচা আলী আহম্মদ মোর্তুজা হাসপাতালে সাংবাদিকদের জানান, তিনি বিষয়টিকে আত্মহত্যাই মনে করছেন। তবে কী কারণে এমনটা হয়েছে তাঁরা কিছু আন্দাজ করতে পারছেন না। পুলিশ বাসা থেকে অনিকের ব্যবহৃত ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন নিয়ে গেছে বলেও জানান তিনি। অনিক ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছিলেন বলে জানা গেছে।

তেজগাঁও বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার (ডিসি) বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, ব্যক্তিগত কোনো কারণে অনিক আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন।

সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের অধ্যাপক সেলিম রেজা সাংবাদিকদের বলেন, সুরতহাল প্রতিবেদনে আত্মহত্যার যে সন্দেহের কথা বলা হয়েছে, ময়নাতদন্তেও সে রকম লক্ষণই পাওয়া গেছে।

শেরেবাংলানগর থানার ওসি গণেশ গোপাল বিশ্বাস জানান, এ বিষয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।



মন্তব্য