kalerkantho


সংবাদ সম্মেলনে মান্না

সরকারের বড় অর্জন বিচারব্যবস্থাকে কুক্ষিগত করা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারের গত চার বছরে সবচেয়ে বড় অর্জন দেশের বিচার ব্যবস্থাকে কুক্ষিগত করে ফেলা। গতকাল সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন মন্তব্য করেছেন।

মান্না বলেন, ‘সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়কে কেন্দ্র করে দেশের প্রধান বিচারপতির মতো পদাধিকারীকে জবরদস্তি সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। দেশের উচ্চ আদালত এখন চলছে একজন শপথহীন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির অধীনে। তিনি বলেন, ‘সংসদ নির্বাচনের আগেই যখন সরকার গঠনের জন্য আবশ্যক ১৫১ জনের বেশি সদস্য বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে যান, তখন ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি ভোটের নামে যা হয়েছে, সেটা প্রহসনের চেয়ে বেশি কিছু নয়। এই সরকার টিকে আছে কেবল জনগণের ওপর বল প্রয়োগের মাধ্যমে।’

গত বছরে দেশ থেকে এক লাখ ২৫ হাজার কোটি টাকা পাচার হয়ে গেছে উল্লেখ করে মান্না বলেন, ‘হাতেগোনা অল্প কিছু খেলাপির কাছেই রয়েছে বেশির ভাগ। এই মানুষগুলো দেশের ব্যাংকিং সেক্টরকে খাদের কিনারায় এনে দাঁড় করিয়েছে। এর সঙ্গে যে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের লোকজন জড়িত তা স্পষ্ট।’ নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক বলেন, গত চার বছরে শিক্ষা ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় অর্জন প্রশ্ন ফাঁসের রেকর্ড। ২০০৯ সালে এই সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই প্রশ্ন ফাঁসের রোগ শুরু হয়। বাড়তে বাড়তে গত চার বছরে তা মহামারি আকার নিয়েছে।

মেগা প্রকল্প মানেই মেগা লুটপাট মন্তব্য করে মান্না বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবরের মতোই মেগা সব প্রজেক্ট বাস্তবায়ন করে উন্নয়নের প্রোপাগান্ডা চালাচ্ছেন। এক পদ্মা সেতুর ব্যয়ের তথ্য আমাদের জানিয়ে দেয় এসব মেগা প্রকল্পের নামে মেগা লুটপাট হচ্ছে। আগের ব্যয়ের চেয়ে এক-দুই হাজার কোটি টাকা বাড়লে সেটা নিয়ে কেউ কিছু বলত না। কিন্তু ব্যয় তিনগুণ হয় কিভাবে? এতেও কি সেতু শেষ হবে?’

সংবাদ সম্মেলনে নাগরিক ঐক্যের উপদেষ্টা এস এম আকরামসহ অন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।



মন্তব্য