kalerkantho


বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

দেশজুড়ে প্রতিবাদ অব্যাহত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজামের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে দেশব্যাপী মানববন্ধন, বিক্ষোভসহ নানা কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। সাংবাদিক ও সুধীসমাজ গতকাল শনিবারও এসব কর্মসূচি থেকে অবিলম্বে হয়রানিমূলক মামলা ও পরোয়ানা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে। গভীর উদ্বেগ ও তীব্র নিন্দা প্রকাশ করেছে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে)। সংগঠনের নির্বাহী পরিষদের সভা থেকে এই উদ্বেগ ও নিন্দা প্রকাশ করা হয়।

ডিইউজের সভাপতি শাবান মাহমুদ ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী এক বিবৃতিতে জানান, নঈম নিজাম ও শ্যামল দত্তের বিরুদ্ধে করা হয়রানিমূলক মামলার বিষয় ডিইউজের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। লালমনিরহাটে বিনা কারণে দায়ের করা মিথ্যা মামলায় নঈম নিজামের বিরুদ্ধে এবং একইভাবে রাজশাহীতে শ্যামল দত্তের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা দেশের সাংবাদিক সমাজকে বিস্মিত করেছে।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদ জানিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাব। গতকাল মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন লালমনিরহাটের সাংবাদিক ও সুধীসমাজের প্রতিনিধিরা। প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন প্রেস ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির পক্ষে সভাপতি কাজী আবুল কালাম আজাদ এবং সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান এবং বরিশাল তরুণ সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি মজিবর রহমান নাহিদ ও সাধারণ সম্পাদক এইচ এম মারুফ। অনুরূপ বিবৃতি দিয়েছেন দাউদকান্দি প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবদুল করিম সরকার, সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুসায়েদা জলি, সাংগঠনিক সম্পাদক সালাউদ্দিন আহমেদ, অর্থ সম্পাদক আমির হোসেন, কার্যকরী সদস্য মোহাম্মদ আলী শাহীন প্রমুখ।

বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম, প্রকাশক ময়নাল হোসেন চৌধুরী ও লালমনিরহাট প্রতিনিধি মো. রেজাউল করিম মানিকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাগেরহাট প্রেস ক্লারের সদস্যরা। মামলা ও পরোয়ানা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন মানিকগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি গোলাম সারোয়ার ছানু, সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব চক্রবর্তী এবং মানিকগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির সভাপতি মতিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক সাজাহান বিশ্বাস। এ দাবিতে গতকাল দুপুরে প্রেস ক্লাবে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। নিন্দা প্রকাশ করে একই দাবি জানিয়েছেন নীলফামারী প্রেস ক্লাব, নীলফামারী রিপোর্টার্স ইউনিটি, টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরাম ও মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম নীলফামারীর নেতারা।


মন্তব্য