kalerkantho


কালের কণ্ঠ’র জন্মদিনে আরো যাঁরা এসেছিলেন ভালোবাসা জানাতে

১২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



(গতকালের পর)

বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় গত বুধবার উদ্‌যাপন করা হয় কালের কণ্ঠ’র অষ্টম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরার গুলনকশা হলে এ উপলক্ষে দিনভর চলে হৃদয়গ্রাহী ও বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালা; আনাগোনা হয় দেশের গুণী ও বিশিষ্টজনদের।   

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এসেছিলেন সদলবলে। বললেন, ‘সামনে নির্বাচন, কোনো কিছুই নিশ্চিত করে বলা যায় না। তবে কালের কণ্ঠ ভালোই করবে মনে হচ্ছে।’ এই বয়সেও প্রাণচঞ্চল এই রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের উদ্দেশে কালের কণ্ঠ’র নির্বাহী সম্পাদক মোস্তফা কামালের মন্তব্য—‘এখনো চিরসবুজ।’

এভাবে আরো অনেকেই এলেন ফুল হাতে। তাঁদের মধ্যে ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিচালক (চিকিৎসা ও পুনর্বাসন) মফিদুল ইসলাম, সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ খোরশিদ আলম, র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার উপপরিচালক মেজর রইসুল আজম মনি ও মেজর আবদুল্লাহ আল মেহেদী, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপপরিচালক দেবাশীষ বর্ধন, এফবিসিসিআই সভাপতি সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম, আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. সাজ্জাদ হায়দার, বাসসের এমডি আবুল কালাম আজাদ, প্রধামন্ত্রীর উপপ্রেসসচিব মনিরুন নেসা নিনু, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডা. কামরুল হাসান খান ও হৃদরোগ বিভাগের অধ্যাপক ডা. হারিসলি হক, জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক ডা. আফজালুর রহমান, কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী, রানার গ্রুপের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান, হক গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আদম তমিজি হক, কনকর্ড গ্রুপের হেড অব মিডিয়া মাহফুজুর রহমান টুটুল, মেট্রোসেম গ্রুপের এমডি মু. শহীদ উল্লাহ, চলচ্চিত্র পরিচালক গিয়াস উদ্দিন  সেলিম, একসময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন, বিজিবি কর্মকর্তা মহসিন রেজা প্রমুখ উপস্থিত হয়ে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করলেন।

আওয়ামী লীগের অন্য নেতাদের মধ্যে সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন ও খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, উপদপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, কার্যনির্বাহী সদস্য রেমন্ড আরেং, খাদ্য মন্ত্রণালয়সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদ দারা, প্রধানমন্ত্রীর উপপ্রেসসচিব আশরাফুল আলম খোকন, যুবলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য মনিরুল ইসলাম হাওলাদার, ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপি নেতাদের মধ্যে স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান, ড. আব্দুল মঈন খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান মে. জে. (অব.) রুহুল আলম চৌধুরী, আব্দুল আউয়াল মিন্টু, বরকতউল্লা বুলু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, শ্যামা ওবায়েদ, বিএনপি নেতা শহীদুল ইসলাম শহীদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়া উদ্দিন বাবলু ও আজম খান, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান, ডেমোক্রেটিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন মনি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ব্যাংক, বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্য থেকে শুভেচ্ছা জানাতে এসেছিলেন প্রাইম ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড, মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, এবি ব্যাংক, দি সিটি ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক, সোনালী, জনতা, বেসিক ব্যাংক, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংক, আইডিএলসি ফাইন্যান্স, প্রাইম ফাইন্যান্স, প্রাইম ইনসুরেন্স কম্পানি লি., বিকাশ, শিওরক্যাশের কর্মকর্তারা।

করপোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে হাইটেক স্টিল, মাগপাই ইঞ্জিনিয়ারিং কোং লি., আনোয়ার ল্যান্ডমার্ক, ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল ঢাকা, বিকন ফার্মাসিউটিক্যালস লি., গাজী গ্রুপ, পাওয়ার গ্রিড কম্পানি অব বাংলাদেশ লি., দি ওয়েস্টিন ঢাকা, ওরিয়ন গ্রুপ, শেভরন বাংলাদেশ, মাগুরা গ্রুপ, এসিআই লজিস্টিক লি. (স্বপ্ন), মমতাজ মেহেদি, স্মার্ট মেহেদি, গ্লোব সফট্ ড্রিংকস, ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড, ইস্ট ওয়েস্ট প্রোপার্টি ডেভেলপার্স লি., আইসিসিবি, রংধনু গ্রুপ, প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ, মেঘনা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ, রহিমআফরোজ ডিস্ট্রিবিউশন, ডানলপ টায়ার, আলোক হেলথ কেয়ার, ইউনিভার্সাল মেডিক্যাল, প্রবাসী পল্লী গ্রুপ, রূপায়ণ গ্রুপ, ওয়ালটন, এমএম ইন্টারন্যাশনাল, গোমতী, বসুন্ধরা কিংস, ইউনাইটেড লি., ইগলু, আইএসপিআর; বিজ্ঞাপনী সংস্থাগুলোর মধ্যে মাত্রা, অরিত্র অ্যাডভারটাইজিং ফার্ম, সারা অ্যাডভারটাইজিং, রানা অ্যাডভারটাইজিং, রোহিতা অ্যাডভারটাইজিং, অন্তর অ্যাড., অ্যাড ট্রেড, গাংচিল লিমিটেড, গোল্ডেন মিডিয়া, জারা অ্যাড. মিডিয়া, বিটোপি অ্যাডভারটাইজিং, অ্যাড কম, গ্রে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড, ক্রিয়েটিভ কমিউনিকেশনস, স্টার মিডিয়া, মিডিয়া এক্সিস, পিআর ইমপেরিয়াল, পার্ল কমিউনিকেশন, অ্যানেক্স কমিউনিকেশন ও সেমস গ্লোবালের কর্মকর্তারা শুভেচ্ছা জানাতে আসেন।

সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ইঞ্জিনিয়ার আবদুল আজিজ, বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা কল্যাণ সমিতির সভাপতি মো. নাজমুল ইসলাম, বাংলাদেশ বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির সভাপতি অধ্যাপক আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার, সেমিনার সচিব কুদ্দুস সিকদার, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যানের পক্ষে জনসংযোগ বিভাগের প্রধান ওমর ফারুক শুভেচ্ছা জানাতে আসেন। এ ছাড়া বাংলাদেশ ইসলামী ইউনিভার্সিটি, প্রাইম ইউনিভার্সিটি, ইউনাউটেড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি, আশা ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটি, কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রোফেশনাল, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠানে এসে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

পেশাজীবী ও ব্যবসায়ী সংগঠনগুলোর মধ্য থেকে পাবলিক রিলেশন্স অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকস (প্র্যাব), বাংলাদেশ চায়না চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, জাতীয় প্রেস ক্লাব, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি, সংবাদপত্র হকার্স কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতি, ঢাকা সংবাদপত্র হকার্স বহুমুখী সমবায় সমিতি লি.; সংবাদমাধ্যমগুলোর মধ্য থেকে সমকাল, দ্য ডেইলি স্টার, বাংলাদেশ প্রতিদিন, নিউজটোয়েন্টিফোরডটকম ও  রেডিও ক্যাপিটালের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।



মন্তব্য