kalerkantho


মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার

টাঙ্গাইলে একজনের বিরুদ্ধে ফরমাল চার্জ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



টাঙ্গাইলে একজনের বিরুদ্ধে ফরমাল চার্জ

দানবীর ও কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা রণদা প্রসাদ সাহা ও তাঁর ছেলে ভবানী প্রসাদ সাহাকে মুক্তিযুদ্ধের সময় হত্যার অভিযোগে টাঙ্গাইলের মো. মাহবুবুর রহমানের বিরুদ্ধে ফরমাল চার্জ (আনুষ্ঠানিক অভিযোগ) ট্রাইব্যুনালে দাখিল করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে তা দাখিল করেন প্রসিকিউটর রানা দাশগুপ্ত। ফরমাল চার্জে মাহবুবুর রহমানের বিরুদ্ধে গণহত্যা, হত্যা, অপহরণ ও অগ্নিসংযোগের তিনটি অভিযোগ আনা হয়।

এর আগে গত ২ নভেম্বর রণদা প্রসাদ সাহা হত্যায় অভিযুক্ত টাঙ্গাইলের মো. মাহবুবুর রহমানের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত করার পর তা প্রকাশ করে ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, আসামি মাহবুবুর রহমানের বাবা আব্দুল ওয়াদুদ মুক্তিযুদ্ধের সময় মির্জাপুর শান্তি কমিটির সভাপতি ছিলেন। জামায়াতে ইসলামীর সমর্থক আসামি মাহবুবুর রাহমান ও তাঁর ভাই আব্দুল মান্নান তখন রাজাকার বাহিনীর সদস্য ছিলেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আসামি মাহবুবুর রহমান একাত্তরের ৭ মে মধ্যরাতে নারায়ণগঞ্জের স্থানীয় রাজাকারদের সহায়তায় পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর ২০-২৫ জন সদস্যকে নিয়ে রণদা প্রসাদ সাহার বাসায় অভিযান চালান। তখন রণদা প্রসাদ সাহা, তাঁর ছেলে ভবানী প্রসাদ সাহা, রণদা প্রসাদের ঘনিষ্ঠ সহচর গৌর গোপাল সাহা, রাখাল মতলব, রণদা প্রসাদ সাহার দারোয়ানসহ সাতজনকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সবাইকে হত্যা করে লাশ শীতলক্ষ্যা নদীতে ফেলে দেওয়া হয়। তাঁদের লাশ আর পাওয়া যায়নি।



মন্তব্য