kalerkantho


সুন্দরবনে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন দস্যু নিহত

বাগেরহাট প্রতিনিধি   

১২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



সুন্দরবনে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু সুমন বাহিনীর তিন দস্যু নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের অধীন বাগেরহাটের শরণখোলার সুকপাড়া চর এলাকায় এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে র‌্যাব। ঘটনাস্থল থেকে দেশি-বিদেশি চারটি আগ্নেয়াস্ত্র, দেশীয় চারটি ধারালো অস্ত্র এবং ৩৯ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত দস্যুরা হলেন মো. জাকারিয়া সরদার (৩০), মো. জুলফিকার শেখ (৩৫) ও মো. খোকন মিনা (৪৩)। তবে তাঁদের ঠিকানা জানাতে পারেনি র‌্যাব।

দস্যুদের মৃতদেহ এবং অস্ত্র ও গুলি শরণখোলা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ব্যাপারে র‌্যাবের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

র‌্যাব বরিশাল-৮-এর কম্পানি কমান্ডার মেজর সোয়েল রানা প্রিন্স জানান, সুন্দরবনে দস্যু সুমন বাহিনীর অস্থায়ী একটি আস্তানার সন্ধান পেয়ে র‌্যাব সদস্যরা গত বুধবার রাতে সেখানে অভিযান শুরু করেন।

গতকাল সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সুকপাড়া চর এলাকায় বনের মধ্যে সন্দেহভাজন কয়েকজনকে ঘোরাফেরা করতে দেখে র‌্যাব সদস্যরা তাদের পরিচয় জানতে চান। তখন তারা র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে শুরু করে। র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালান।

র‌্যাবের কম্পানি কমান্ডার আরো জানান, প্রায় ৪০ মিনিট ধরে গুলিবিনিময়ের পর দস্যুরা পিছু হটলে বন তল্লাশি করে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তিনজনের মৃতদেহ পাওয়া যায়। ঘটনাস্থল থেকে দস্যুদের ব্যবহৃত দুটি একনলা বন্দুক, একটি কাটা রাইফেল, একটি পাইপগান, দেশে তৈরি চারটি ধারালো অস্ত্র এবং ৩৯ রাউন্ড গুলি ও গুলি রাখার তিনটি বান্ডলিয়ার উদ্ধার করা হয়।

এর আগে গত মঙ্গলবার ভোরে সুন্দরবনের শরণখোলা উপজেলাধীন কাতিয়ার খালে নৌ পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ বনদস্যু ফরিদ শেখ নিহত হন।



মন্তব্য