kalerkantho


গাইবান্ধায় এরশাদ

সরকার পরিবর্তন চায় দেশের মানুষ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি   

৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘দেশে আজ হত্যা, গুম, চাঁদাবাজি, অনিয়ম আর দুর্নীতিতে ভরে গেছে। দেশের মানুষ সরকার পরিবর্তন চায়। বিএনপি ও আওয়ামী লীগকে দেশের মানুষ আর চায় না। আগামীতে জাতীয় পার্টি এককভাবে নির্বাচন করবে। জাতীয় পার্টি আবার ক্ষমতায় আসবে—এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।’ গতকাল সোমবার গাইবান্ধায় এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

জাতীয় সংসদের গাইবান্ধা-১ আসনের আসন্ন উপনির্বাচনে প্রার্থী পরিচিতির জন্য গতকাল সুন্দরগঞ্জ উপজেলা সদরে আব্দুল মজিদ উচ্চ সরকারি বালক বিদ্যালয় মাঠে এক জনসভার আয়োজন করেছিল জাতীয় পার্টি। জাপা চেয়ারম্যানের আইনবিষয়ক উপদেষ্টা ও সুন্দরগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এতে সভাপতিত্ব করেন। জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়া উদ্দীন আহমেদ বাবলু, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা, পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান ও রংপুর সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তাফা প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ বলেন, ‘গাইবান্ধা জেলার পাঁচটি আসন ছিল জাতীয় পার্টির দখলে। গাইবান্ধা-১ সুন্দরগঞ্জ আসনে আগামী ১৩ মার্চ উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারীকে লাঙল প্রতীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করুন। শুধু ভোট দিলে হবে না, কেন্দ্রে কেন্দ্রে অতন্দ্র প্রহরীর মতো দাঁড়িয়ে থেকে বিজয়ের ফলকে রক্ষা করতে হবে। জাতীয় পার্টি সরকার গঠন করলে শামীম হায়দারকে মন্ত্রী করা হবে।’

এরশাদ বলেন, লাঙলের প্রতি মানুষের ভালোবাসা অতীতে যেমন ছিল তেমনি আছে। এ কারণে দেশে এখন লাঙলের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী এক লাখ ভোট বেশি পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন ও দেশের উন্নয়ন করতে পারবে জাতীয় পার্টি। জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় এলেই দেশের মানুষের মধ্যে শান্তি আসবে।



মন্তব্য