kalerkantho


খুলনার ৯ পাটকল

শ্রমিকদের পাওনা ৪০ কোটি টাকা, কর্মবিরতি অব্যাহত

খুলনা অফিস   

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



বকেয়া মজুরির দাবিতে খুলনা অঞ্চলের ৯টি পাটকলে শ্রমিকদের কর্মবিরতি অষ্টম দিনের মতো অব্যাহত আছে। বকেয়া ৪০ কোটি টাকা পরিশোধ না হওয়া পর্যন্ত কাজে ফেরবেন না বলে শ্রমিকরা ঘোষণা দিয়েছে।

বাংলাদেশ জুটমিলস করপোরেশন (বিজেএমসি) সূত্রে জানা গেছে, এ অঞ্চলের ৯টি পাটকলে ২৬ হাজার ৭১৮ জন শ্রমিকের চার থেকে ১২ সপ্তাহের মজুরি বকেয়া রয়েছে। যার আর্থিক পরিমাণ ৪০ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। এ কারখানাগুলোতে বর্তমানে ২১ হাজার ৪৭৪ মেট্রিক টন পাটজাত পণ্য বিক্রির অপেক্ষায় রয়েছে। যার মূল্য প্রায় ২১৫ কোটি টাকা।

অব্যাহত আন্দোলনের মুখে গত বৃহস্পতিবার স্টার, দৌলতপুর, ক্রিসেন্ট, খালিশপুর ও ইস্টার্ন জুটমিলে এক সপ্তাহের মজুরি দেওয়া হয়েছে। এর আগে কার্পেটিং জুটমিলে এক সপ্তাহের মজুরি পরিশোধ করা হয়। তবে এখনো খুলনার বাকি দুটি প্লাটিনাম ও আলিম এবং যশোরের জেজেআই জুটমিলের বকেয়ার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

বিজেএমসি খুলনা অফিসের হিসাবে, ৯টি জুটমিল চালু থাকলে প্রতিদিন প্রায় ২২৫ মেট্রিক টন পাটজাত পণ্য উৎপাদন হতো। সেই হিসাবে গত আট দিনে এক হাজার ৮০০ মেট্রিক টন পণ্য উৎপাদন বিঘ্নিত হয়েছে। যার আর্থিক মূল্য প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা।

প্লাটিনাম জুট মিলের শ্রমিক নেতা খলিলুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আট দিনেও বিজেএমসি কার্যকরী পদক্ষেপ না নেওয়ায় শ্রমিকদের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজ করছে। বকেয়া মজুরি পুরাপুরি পরিশোধ হলে শ্রমিকরা কাজে ফিরবেন।’ এদিকে আজ রবিবার ঢাকায় সিবিএ-নন সিবিএ পরিষদের কেন্দ্রীয় সভা থেকে নতুন কর্মসূচি আসতে পারে বলে শ্রমিকরা জানিয়েছে।



মন্তব্য