kalerkantho


কক্সবাজারে যাচ্ছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি

মাদক ও রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের সিদ্ধান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



মাদক ও রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের সিদ্ধান্ত

মাদক ও রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে সুনির্দ্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। এর জন্য সরেজমিনে রোহিঙ্গা আশ্রয়শিবির ও কক্সবাজারের সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করবেন কমিটির সদস্যরা। আগামী ১৭ জানুয়ারি কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে কমিটির ১৯তম বৈঠকে কর্মপরিকল্পনা চূড়ান্ত করা হবে বলে জানা গেছে।

মিয়ানমারের রাখাইনে হামলার শিকার হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের দেখতে আগামী ১৬ জানুয়ারি সংসদীয় কমিটির সদস্যরা কক্সবাজারের কুতুপালংয়ে রোহিঙ্গা ‘শরণার্থী’ ক্যাম্প এলাকা পরিদর্শন করবেন। রোহিঙ্গাদের দুঃখ-দুর্দশা স্বচক্ষে দেখার পর তাদের নিরাপত্তার বিষয়ে করণীয় নির্ধারণ করা হবে। কমিটির সদস্যরা রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশকারী নিবন্ধন কার্যক্রমের সর্বশেষ পরিস্থিতি সম্পর্কেও অবগত হবেন। এ ছাড়া সীমান্ত এলাকায় ইয়াবাসহ মাদক চোরাচালান সম্পর্কে সরেজমিনে খোঁজখবর নেওয়ারও পরিকল্পনা রয়েছে। পরে ১৭ জানুয়ারি কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ওই বৈঠকে কমিটির সদস্য ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালকে অংশগ্রহণ করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে বৈঠকে ক্যাম্প এলাকার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে। বৈঠকে মাদক চোরাচালান বন্ধ ও রোহিঙ্গা ইস্যুতে করণীয় নির্ধারণ করা হবে। গত বছরের ৪ অক্টোবর জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির ১৮তম বৈঠকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পসহ কক্সবাজার পরিদর্শনের সিদ্ধান্ত হয়। সংসদীয় কমিটির গত ১০ থেকে ১২ অক্টোবর  কক্সবাজার যাওয়ার কথা থাকলেও তা পিছিয়ে দেওয়া হয়।

এদিকে সম্প্রতি আরো দুটি সংসদীয় কমিটি রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকা পরিদর্শন করেছে। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি গত ৩ ডিসেম্বর কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। এর আগে গত ২৫ অক্টোবর বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির সদস্যরা। একই দিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে উখিয়ার রোহিঙ্গাদের ক্যাম্পে সেনাবাহিনীর কাজ পরিদর্শনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে ২৮ নভেম্বর কমিটির ২৮তম বৈঠকেও এ নিয়ে আলোচনা হয়। বৈঠক থেকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়কে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে সম্ভাব্য পরিদর্শনসূচি প্রণয়নের নির্দেশনা দেওয়া হয়। কিন্তু পরে এ বিষয়ক আর কোনো উদ্যোগের খবর পাওয়া যায়নি। আর ওই দুই কমিটি পরিদর্শন করলেও তাদের সুপারিশ সম্পর্কে কিছুই জানা যায়নি। ফলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠক কতটা সুফল বয়ে আনবে তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

অবশ্য সংসদীয় কমিটির এই কর্মসূচি ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে মনে করেন কমিটির সদস্য মোজাম্মেল হোসেন। তিনি কালের কণ্ঠকে বলেন, মাদক নিয়ে কমিটির পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে বেশ কিছু সুপারিশ করা হয়েছে। কক্সবাজারে সরেজমিনে দেখার পর এসংক্রান্ত সুপারিশগুলো আরো সুনির্দিষ্ট করা হবে। আর রোহিঙ্গা ইস্যুটি বর্তমানে বিশ্বে সব চেয়ে আলোচিত ইস্যু। কমিটির পক্ষ থেকে আগে তাদের নিরাপত্তার বিষয়ে দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

তবে কক্সবাজারের বৈঠকে সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করে করণীয় নির্ধারণ করা হবে।



মন্তব্য