kalerkantho


ঢাকায় আন্তর্জাতিক সংলাপ শুরু

সমুদ্রসম্পদে দৃঢ়তা বাংলাদেশের কাজে লাগাতে বলল আইএসএ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, ২০৩০ সাল নাগাদ দেশের ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি আসবে ব্লু ইকোনমি থেকে। সমুদ্র অর্থনীতি নিয়ে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত দুই দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সংলাপের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে গতকাল বুধবার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ অভিমত জানান।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘সমুদ্রে আমাদের ব্যাপক সম্পদ রয়েছে। মিয়ানমার ও ভারত থেকে আমরা এক লাখের বেশি বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে নতুন সমুদ্রসীমা পেয়েছি। বিশ্বের অনেক দেশ তাদের সমুদ্রসম্পদকে কাজে লাগিয়ে সমৃদ্ধিশালী দেশে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশও সেটি করে দেখাবে। ’

সমুদ্রসম্পদ আহরণে কী করণীয় তা অনুসন্ধান করতে সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞদের প্রতি আহ্বান জানান মন্ত্রী।

পরিকল্পনামন্ত্রী আরো বলেন, ‘গত দুই অর্থবছর ধরে আমরা ৭ শতাংশের বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছি। দেশের অর্থনীতি যেভাবে চলছে, তাতে ২০১৯ সালের মধ্যে আমাদের প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশে উন্নীত হবে। আর ২০৩০ সাল নাগাদ ১০ শতাংশে উন্নীত হবে। ’

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মেরিটাইম অ্যাফেয়ার্স ইউনিটের সচিব খোরশেদ আলম, ইন্টারন্যাশনাল সিবেড অথরিটির (আইএসএ) মহাপরিচালক মিশেল লজ।

মিশেল লজ বলেন, বাংলাদেশের বিশাল সমুদ্রসম্পদ রয়েছে। এর সঙ্গে নতুন করে মিয়ানমার ও ভারত থেকেও সমুদ্রসীমা বিজয় করেছে। তবে এই সমুদ্রসম্পদকে কাজে লাগাতে হবে। সে জন্য পরিকল্পনা নিতে হবে দীর্ঘমেয়াদি। সেটি বাস্তবায়ন করতে পারলে আর্থ-সামাজিক অবস্থার ব্যাপক পরিবর্তন ঘটবে।

সংলাপে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, ‘মিয়ানমার ও ভারত থেকে আমরা যে সমুদ্রসীমা জয়লাভ করেছি, সে সমুদ্রসীমাকে কিভাবে কাজে লাগানো যায়, আমরা সে উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। আমাদের সহযোগিতা করতে ইউএনডিপি, বিশ্বব্যাংক, ইউরোপীয় ইউনিয়ন প্রস্তাব দিয়েছে। ’

সম্মেলন শেষ হবে আজ বৃহস্পতিবার। সম্মেলনে নৌবাহিনী, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়, পরিবেশ অধিদপ্তর, মত্স্য ও প্রাণিসম্পদ, নৌপরিবহন, শিক্ষা, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ, বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড, বাংলাদেশ ভূ-তাত্ত্বিক জরিপ অধিদপ্তর, পানি উন্নয়ন বোর্ডের পাশাপাশি বিদেশি অতিথিরা অংশগ্রহণ করছেন।


মন্তব্য