kalerkantho


কার্ডিনাল রোজারিও

ঢাকায় রোহিঙ্গাদের নিয়ে কথা বলতে পারেন পোপ

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

২২ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস তাঁর আসন্ন বাংলাদেশ সফরে মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের বিষয়ে কথা বলতে পারেন। ঢাকার ক্যাথলিক আর্চবিশপ কার্ডিনাল প্যাট্রিক ডি রোজারিও গতকাল মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের উত্তরে এ কথা জানান। আগামী ৩০ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর পোপ ফ্রান্সিসের বাংলাদেশ সফর বিষয়ে ঢাকায় আর্চবিশপ হাউসে ওই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পোপের কথা বলার সম্ভাবনা বিষয়ে কার্ডিনাল প্যাট্রিক ডি রোজারিও বলেন, ‘জাতীয়ভাবে আমরা আশা করতে পারি, তিনি এ বিষয়ে কথা বলবেন। তাঁর বার্তা সারা বিশ্বে খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। ’

প্যাট্রিক ডি রোজারিও বলেন, পোপ ইতিমধ্যে বেশ কবার রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর সুরক্ষার জন্য আবেদন জানিয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আর্চবিশপ নির্বাহী কমিটির প্রধান সমন্বয়ক শরৎ ফ্রান্সিস গোমেজ বলেন, পোপের সফর বাংলাদেশের জন্য সম্মান ও গর্বের বিষয়।

সফরের আগে বাংলাদেশের জনগণের জন্য পোপ একটি ভিডিও বার্তা পাঠিয়েছেন। সেখানে শান্তি, ক্ষমা ও পুনর্মিলনের বার্তা রয়েছে। তিনি বিশেষভাবে রমনায় ধর্মীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের অপেক্ষায় আছেন।

আগামী ২৬ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত মিয়ানমার ও বাংলাদেশ সফর করবেন পোপ ফ্রান্সিস।

৩০ ডিসেম্বর বিকেল ৩টায় মিয়ানমার থেকে পোপের বাংলাদেশে আসার কথা রয়েছে। পোপ ঢাকার সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে স্বাধীনতার জন্য আত্মত্যাগকারী বীর শহীদদের প্রতি এবং ধানমণ্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবেন। পোপ রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ১ ডিসেম্বর প্রার্থনায় অংশ নেবেন এবং ১৬ জন ডিকনকে যাজক পদে অভিষিক্ত করবেন।


মন্তব্য