kalerkantho


রাজশাহী চট্টগ্রামে সড়কে ঝরল ৭ প্রাণ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৮ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



রাজশাহী চট্টগ্রামে সড়কে ঝরল ৭ প্রাণ

সীতাকুণ্ডে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত অপু ও বিদ্যুৎ দাশ। ছবি : কালের কণ্ঠ

২৪ ঘণ্টার মধ্যে রাজশাহী ও চট্টগ্রাম জেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় সাতজন নিহত হয়েছে। এসব দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন।

বিস্তারিত আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে—

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী জানান, গতকাল শুক্রবার দুপুর পৌনে ৩টার দিকে শাহ মখদুম থানার বায়া এলাকায় একটি বাস উল্টে খাদে পড়ে তিনজন নিহত হয়েছেন; আহত হয়েছে আরো সাতজন। আহতদের মধ্যে চারজনকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতরা হলেন জেলার দুর্গাপুরের দাউকান্দ এলাকার মৃত আমানত উল্লাহর ছেলে শহিদুল ইসলাম (৩৫) ও তাঁর স্ত্রী শামীমা বেগম এবং মোহনপুরের তেবাড়ি সাধুপাড়া এলাকার আরজেদ খানের ছেলে খোরশেদ আলী (১৮)।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বায়ার কলেজ শিক্ষক আব্দুল হান্নান জানান, দুর্ঘটনাকবলিত বাসটি রাজশাহী থেকে নওগাঁর দিকে যাচ্ছিল। পথে বায়া এলাকায় পৌঁছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের খাদে পড়ে যায়। এ সময় স্থানীয়রা ছুুটে এসে বাসটি উদ্ধারের চেষ্টা করে। পরে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ উদ্ধার তত্পরতা শুরু করে।

শাহ মখদুম থানার ওসি জিল্লুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘নিহতদের উদ্ধার করে রামেক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ছাড়া আহতদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম জানান, হাটহাজারী উপজেলার মীরেরহাট এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নারীসহ দুজন নিহত হয়েছেন। গতকাল সকাল ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে একজনের পরিচয় জানা গেছে। তাঁর নাম রোকেয়া বেগম (৪৫)। অন্যজনের নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি, তাঁর বয়স আনুমানিক ৩৫ বছর। নিহতরা সিএনজিচালিত অটোরিকশার যাত্রী ছিলেন। একই ঘটনায় আহত হয়েছে আরো কয়েকজন।

জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মশিউদ্দোলা রেজা বলেন, ‘গাড়িচাপায় হাটহাজারীর মীরেরহাটে দুজন নিহত হয়েছে। এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য এখনো পাইনি। ’

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি জানান, সীতাকুণ্ডে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছে, আহত হয়েছে আরো একজন। বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৩টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের টেরিয়াইল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস হতাহতদের উদ্ধার করে।

নিহতরা হলেন পটিয়ার বাকখাইন গ্রামের আশুতোষ দাশের ছেলে বিদ্যুৎ দাশ (২৮) ও চট্টগ্রাম আন্দরকিল্লা এলাকার অশোক দাশের ছেলে অপু দাশ (২৯)। এতে আহত হয়েছেন বাপ্পী দাশ (২৯)। নিহতদের প্রতিবেশী ঘাট ফরহাদবেগের বাসিন্দা উত্তম চন্দ্র দাশ জানান, নিহত বিদ্যুৎ ও অপু পরস্পরের ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবং বাপ্পী অপুর চাচাতো ভাই। তাঁরা মোটরসাইকেল নিয়ে সীতাকুণ্ডে বেড়াতে গিয়েছিলেন।

সীতাকুণ্ড ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার ওয়াসি আজাদ জানান, টেরিয়াইল বাজারের দক্ষিণে অজ্ঞাত একটি গাড়ি মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই বিদ্যুৎ ও অপু নিহত হন।


মন্তব্য