kalerkantho


বন্যাদুর্গতদের স্বাস্থ্যসেবায় ‘স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩১ আগস্ট, ২০১৭ ০০:০০



দেশে প্রথমবারের মতো বন্যাদুর্গত মানুষের স্বাস্থ্যসেবায় ব্যবহৃত হচ্ছে প্রযুক্তিগত যোগাযোগব্যবস্থা। সরকারের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবার আওতায় ‘স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩’  উদ্যোগ পৌঁছে গেছে বাংলাদেশের বন্যাদুর্গত এলাকার মানুষের কাছে।

সরকারের মেডিক্যাল টিমের সঙ্গে এই ব্যবস্থাটিও সহায়ক হিসেবে ভূমিকা রাখছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানায়, ত্রাণ, স্বেচ্ছাসেবক দল, বিভিন্ন এনজিও এবং বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন পদক্ষেপ নিলেও জরুরিভিত্তিক স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে সরকারি উদ্যোগই সবচেয়ে বেশি কার্যকর হয়ে ওঠে সব সময়। এরই অংশ হিসেবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আবেদনে সাড়া দিয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) মোবাইল ফোনের এসএমএস মাধ্যমে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ কল সেন্টার থেকে বিনা মূল্যে বন্যাসংক্রান্ত স্বাস্থ্যসেবার ব্যবস্থা করে। এ ক্ষেত্রে বন্যাদুর্গত লালমনিরহাট, পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, রংপুর, দিনাজপুর, গাইবান্ধা, বগুড়া, জামালপুর, টাঙ্গাইল, সুনামগঞ্জসহ বাকি এলাকাগুলো থেকে ব্যাপক সাড়া মিলছে। জাতীয় স্বাস্থ্য হেল্পলাইন ‘স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩’তে গত ২২ আগস্ট থেকে অসংখ্য ফোন কল আসছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানায়, সাধারণ সময়ে ‘স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩’ নম্বরে পাঁচ থেকে ছয় হাজার মানুষকে স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবা দিয়ে থাকে। কিন্তু গত সপ্তাহ থেকে এর সংখ্যা দিনে প্রায় ৪০ হাজার পর্যন্ত উঠেছে। এ ক্ষেত্রে বেশির ভাগ ফোন কলেই বন্যাজনিত পানিবাহিত ও ভাইরাসজনিত রোগের সমস্যা জানানো হয়। এ ছাড়া জ্বর, ঠাণ্ডা, কাশি, এলার্জি, পাতলা পায়খানা, সাপ বা পোকা মাকড়ের কামড় ও বিভিন্ন ছোঁয়াচে রোগও রয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানিয়েছে, ১৬২৬৩ হচ্ছে স্বাস্থ্য বাতায়নের হেল্পলাইন নম্বর। সরাসরি অভিজ্ঞ ডাক্তারের কাছ থেকে বিনা মূল্যে যেকোনো স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবা পাওয়া যায় দিন-রাত ২৪ ঘণ্টাই। স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবার পাশাপাশি, স্বাস্থ্য বাতায়নের ১৬২৬৩ নম্বরে কল করে পাওয়া যায় যেকোনো সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালের তথ্য, ডাক্তারের তথ্য এবং জরুরিভিত্তিক অ্যাম্বুল্যান্সের খবর। এমনকি এর মাধ্যমে জনগণ বিভিন্ন স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কে কার্যকরী পরামর্শ অথবা অভিযোগও জানাতে পারে। গত দুই বছরেরও কম সময়ের মধ্যে স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ কল সেন্টার থেকে ২০ লাখের বেশি মানুষকে সফলভাবে নানা ধরনের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়েছে।


মন্তব্য