kalerkantho


বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন

চ্যালেঞ্জ করে আইনি পদক্ষেপের ঘোষণা মানবাধিকারকর্মীদের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



সম্প্রতি পাস হওয়া বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনের বিশেষ বিধানসহ কিছু বিধানের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আইনের আশ্রয় নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন মানবাধিকার ও উন্নয়নকর্মীরা। গতকাল শনিবার সকালে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে ৭১টি মানবাধিকার ও উন্নয়ন সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি সংবাদ সম্মেলন করে এই ঘোষণা দিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতির নির্বাহী পরিচালক অ্যাডভোকেট সালমা আলী বলেন, এ আইনটি সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। কোনো শিশুর যদি অভিভাবক না থাকে, রাষ্ট্র তার দায়িত্ব নেবে। কিন্তু বিয়ে দিয়ে তাকে পার করা মূল উদ্দেশ্য হতে পারে না। তিনি বলেন, ‘আমরা আবারও লিগ্যাল অ্যাকশনে যাব এবং এর জন্য আমরা আইনজীবী ও নারী উন্নয়ন সংগঠন একসঙ্গে কাজ করব। ’ এই আইনের ফাঁকফোকর ব্যবহার করে সমাজে আরো সমস্যার সৃষ্টি হবে বলে তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

সংবাদ সম্মেলনটি সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আয়েশা খানম। তিনি বলেন, অধিকারভিত্তিক দৃষ্টিভঙ্গি এবং কল্যাণমুখী দৃষ্টিভঙ্গি থেকে নারীর অধিকার রক্ষার জন্য সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি কাজ করে চলছে। তেমনি বাল্যবিবাহ নিয়ে নানামুখী বিষয়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনার পরও বিশেষ বিধান রেখে আইনটি পাস হয়। এরপর খুব দ্রুত গেজেট প্রকাশিত হয়, যা সত্যিই চরম বিস্ময়কর।

তিনি বলেন, ‘আমরা এখনো এ আইনটি পরিবর্তনের আশা রাখি। ’

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন দ্য হাঙ্গার প্রজেক্টের প্রগ্রাম ম্যানেজার দিলীপ কুমার সাহা, ওয়াইডাব্লিউসির প্রতিনিধি অ্যাডভোকেট সাবিনা শিপ্রা দাশ, স্টেপস টুওয়ার্ডস ডেভেলপমেন্টের চন্দ লাহিড়ী, আইন ও সালিশ কেন্দ্রের সিনিয়র ডেপুটি ডিরেক্টর অ্যাডভোকেট রওশন জাহান পারভীন প্রমুখ।


মন্তব্য