kalerkantho


অবৈধভাবে প্রভাব খাটিয়ে প্লট বরাদ্দের মামলা

পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যানের ছেলেকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



রাজধানীর পূর্বাচলে অবৈধভাবে প্রভাব খাটিয়ে প্লট বরাদ্দের মামলা তদন্তের অংশ হিসেবে পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান ও সাবেক এমপি এম এ হাশেমের ছেলে আশফাক আজিজ রুবেলকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে গতকাল বুধবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন সংস্থাটির উপপরিচালক মির্জা জাহিদুল আলম।

দুদকে সশরীরে হাজির হয়ে জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে আশফাক আজিজ রুবেলকে গত ৫ মার্চ নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। এই মামলার আরেক আসামি রুবেলের ভাই শওকত আজিজ রাসেল জামিনে রয়েছেন।

শওকত আজিজ রাসেল ও আশফাক আজিজ রুবেলের নামে রাজধানীর পূর্বাচলে ১০ কাঠা করে দুটি প্লট বরাদ্দ নেওয়ার অভিযোগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর মতিঝিল থানায় মামলা করে দুদক। মামলায় রাজউকের সাবেক চেয়ারম্যান ও সাবেক সচিব ইকবাল উদ্দিন চৌধুরীসহ আরো চারজনকে আসামি করা হয়। পরদিন শওকত আজিজ রাসেলকে গুলশান থেকে ও ইকবাল উদ্দিন চৌধুরীকে পরীবাগ থেকে গ্রেপ্তার করে দুদক। ওই দিনই রাসেল ও ইকবাল চৌধুরীর জামিন আবেদন খারিজ করে দিয়ে তাঁদের কারাগারে পাঠান ঢাকা মহানগর হাকিম আদালত। রাসেল হাইকোর্টে আবেদন করে জামিন লাভ করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, আসামিরা অবৈধ প্রভাব খাটিয়ে রাজউকের ১০ কাঠা করে দুটি প্লট বরাদ্দ দেওয়া ও নেওয়ার কাজে জড়িত ছিলেন। ২০০৪ সালে পূর্বাচলে শওকত আজিজ রাসেলের নামে ১০ কাঠা ও আশফাক আজিজ রুবেলের নামে ১০ কাঠা করে প্লট বরাদ্দ দেওয়া হয়।

আর ইকবাল উদ্দিন চৌধুরী ২০০১ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত রাজউকের চেয়ারম্যান ছিলেন।


মন্তব্য