kalerkantho


অবশেষে চট্টগ্রামে মহিলা আওয়ামী লীগের কমিটি থেকে জামায়াত নেতার মেয়ে বাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



অবশেষে কেন্দ্রীয় জামায়াত নেতা মোমিনুল হক চৌধুরীর মেয়ে ও আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামউদ্দিন নদভির স্ত্রী রিজিয়া রেজা চৌধুরীকে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের ৭১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। তাতে রিজিয়ার নাম নেই।

প্রায় ২০ বছর পর গত ২০ ফেব্রুয়ারি নগরীর চকবাজারের একটি কমিউনিটি সেন্টারে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন হয়। সম্মেলনে জামায়াতের কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য মোমিনুল হক চৌধুরীর মেয়ে রিজিয়া রেজা চৌধুরীর নাম সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে ঘোষণা করা হয়। এই নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখান আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। একপর্যায়ে তাঁকে বাদ দিয়েই পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেয় সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটি।

এ ব্যাপারে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য চেমন আরা তৈয়ব গতকাল বলেন, ‘কাউন্সিল অধিবেশনে কেন্দ্রীয় নেতারা সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে রিজিয়ার নাম ঘোষণা করেছিলেন। এরপর গত ২ মার্চ কেন্দ্রীয় কমিটি ৭১ সদস্যের কমিটির অনুমোদন দেয়। এতে রিজিয়াকে কোনো পদে রাখা হয়নি। ওনারা (কেন্দ্রীয় কমিটি) তাঁর নাম ঘোষণাও করেছিলেন, আবার তাঁর নাম ছাড়া কমিটিও অনুমোদন দিয়েছেন।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বলেন, ‘কেন্দ্রীয় নেতারা রিজিয়ার নাম ঘোষণা করেছিলেন। আসলে তাঁরা জানতেন না তাঁর নাম-পরিচয়। পরে তীব্র প্রতিক্রিয়ার পর তাঁরা বিষয়টি তদন্ত করে বাদ দিয়েছেন। ’

গতকাল চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চেমন আরা তৈয়ব, সহসভাপতি কল্পনা লালা, দীপিকা বড়ুয়া ও রেহেনা ফেরদৌস, সাধারণ সম্পাদক শামীমা হারুন লুবনা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খালেদা আক্তার চৌধুরী, অ্যাডভোকেট পাপড়ি সুলতানা প্রমুখ। তাঁরা সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

প্রসঙ্গত, মোমিনুল হক চৌধুরীর বাড়ি চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায়। তাঁর মেয়ের স্বামী ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামউদ্দিন নদভি ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে চট্টগ্রামের সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসন থেকে আওয়ামী লীগের টিকিটে এমপি হন। তিনি এমপি হওয়ার আগে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে জড়িত ছিলেন না।

অভিযোগ রয়েছে, মহিলা আওয়ামী লীগের কোনো পদ বা সাধারণ সদস্য পদও নেই নদভির সহধর্মিণী রিজিয়ার। তিনি জামায়াতের ছাত্রী সংগঠনের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।


মন্তব্য