kalerkantho


মানবতার সেবায় এক ঝাঁক তরুণ

অসহায় দুস্থদের পাশে ‘সবিনয় বলতে চাই’

মোশতাক আহমদ   

১৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



অসহায় দুস্থদের পাশে ‘সবিনয় বলতে চাই’

নানা রোগে আক্রান্ত নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ধলাইলডাঙ্গা গ্রামের ষাটোর্ধ্ব লতিফুন বেওয়া। দুই ছেলে থাকে বিদেশে।

একমাত্র মেয়ে শ্বশুরবাড়িতে। শেষ বয়সে এসে তাঁর দিন কাটে একাকীত্বে। অসুস্থ হলেও ১০ কিলোমিটার দূরের স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যাওয়ার সামর্থ্য তাঁর নেই।

কলেজ শিক্ষার্থী আরিফুল গত ১৮ জানুয়ারি তাঁর অসুস্থতার খবর পেয়ে ছুটে যান লতিফুন বেওয়ার বাড়িতে। তাঁকে সঙ্গে করে নিয়ে যান হেলথ ক্যাম্পে। সেখানে চিকিৎসা নিতে আসা একই গ্রামের লাইজু আক্তার, সফেরন বেওয়া, জমিলা খাতুন, রাশেদ মাতব্বরসহ আরো অনেককে দেখে লতিফুন মনে জোর পান। চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র ও ওষুধ দিয়ে তাঁকে বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হয়। বাড়ির কাছে স্বাস্থ্যসেবা পেয়ে যারপরনাই খুশি এই অসহায় বৃদ্ধা।

লতিফুন বেওয়ার মতো যাঁরা সমাজে নিঃসঙ্গ জীবনযাপন করছেন এবং বয়সের কারণে চলাফেরা বা হাসপাতালে গিয়ে সেবা নেওয়ার শারীরিক বা আর্থিক সামর্থ্য নেই, তাঁদের পাশে দাঁড়িয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘সবিনয় বলতে চাই’।

সংগঠনটি হাজারো অসহায় মানুষকে সেবা দিয়ে তাঁদের মুখে হাসি ফোটাচ্ছে।

জানা গেছে, ‘সবিনয় বলতে চাই’ সুন্দর বাংলাদেশ চাই ফাউন্ডেশনের একটি স্বেচ্ছাসেবী ফোরাম। এই ফোরাম সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য মানবিক ও সামাজিক কর্মযজ্ঞ পরিচালনা করে চলেছে। এটির সহযোগী সংগঠন হিসেবে কাজ করছে বাংলাদেশ ভলান্টিয়ার্স অর্গানাইজেশন। এ ছাড়াও দেশজুড়ে সংগঠনটির রয়েছে ৮০০ স্বেচ্ছাসেবক। বেশির ভাগ সদস্য কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। সর্বশেষ গত ১৮ ও ২০ জানুয়ারি নড়াইল, যশোর ও ঝিনাইদহ জেলায় সুবিধাবঞ্চিত মানুষের মধ্যে বিনা মূল্যে স্বাস্থ্যসেবা ক্যাম্প পরিচালনা করেছে সংগঠনটি। এ ক্যাম্পে এক হাজার ১০০ দুস্থ রোগীকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা দিনব্যাপী ফ্রি চিকিৎসা, ওষুধ ও খাবার স্যালাইন দেওয়া হয়। গাজীপুর এবং ঢাকার বিভিন্ন এলাকায়ও কার্যক্রম পরিচালনা করছে ফোরামটি।

‘সবিনয় বলতে চাই’-এর সভাপতি এ এস এম সাজ্জাদ হোসাইন জানান, আগামী ছয় মাসের মধ্যে এই ফোরাম দেশের ২১টি জেলায় ফ্রি স্বাস্থ্যসেবা ক্যাম্প, নিরাপদ শিশুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করাসহ বিভিন্ন মানবিক ও সামাজিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে যাচ্ছে।

দুস্থদের সেবার এ কার্যক্রমে সহায়তা প্রদান ও যোগাযোগের জন্য আগ্রহী যেকোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান ফোরামের ওয়েবসাইট www.sbcfbd.com ভিজিট করতে পারে।


মন্তব্য